মেইন ম্যেনু

পজেটিভ সাংবাদিকতার পরামর্শ দিলেন তারানা হালিম

ডাক ও টেলিযোগাযোগ প্রতিমন্ত্রী অ্যাডভোকেট তারানা হালিম এক প্রশ্নের জবাবে সাংবাদিকদের পজেটিভ সাংবাদিকতার পরামর্শ দেন। শনিবার পৌনে ১২টার দিকে টাঙ্গাইলের দেলদুয়ারে বেলায়েত হোসেন বহুমুখী উচ্চ বিদ্যালয়ের বার্ষিক পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে এ কথা বলেন তিনি।

সাংবাদিকরা এ্যাপস বন্ধের কারণ জানতে চাইলে তারানা হালিম বলেন, জনজীবন হুমকির সম্মুখীন হওয়ায় এ্যাপস বন্ধ ছিল। এখন খুলেও দেওয়া হয়েছে। মানুষের জীবনের চেয়ে এ্যাপসের গুরুত্ব বেশি হতে পারে না।

এসময় তিনি যুক্তরাষ্ট্র ও বেলজিয়ামের সাথে তুলনা করে বলেন, উন্নত বিশ্বে একজন আসামিকে ধরার জন্য ৪৮ ঘন্টা এ্যাপস বন্ধ ছিল। সেখানে কোন আন্দোলন হয়নি।

নাশকতার সাথে এ্যাপসের সম্পর্কের কথা জানতে চাইলে তিনি বলেন, এটা মন্ত্রনালয়ের বিষয়। আমি সব বিষয় ডিলিংস করি না। তবে বিএনপি-জামায়াত নাশকতা করতে পারত এটা ভেবেই এ্যাপস বন্ধ ছিল।

প্রতিমন্ত্রী আরো বলেন, থ্রি-জি ও টু-জির উন্নতি হচ্ছে । শিগগির দেশে ফোর জি চালু হচ্ছে। সিম রেজিস্ট্রেশন শুরু হয়েছে।

দিনব্যাপী পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে প্রথম পর্বের বিদ্যালয়ের প্রায় তিন হাজার শিক্ষার্থীর বিভিন্ন প্রদর্শনী দেখে মন্ত্রী মুগ্ধ হন।

অনুষ্ঠান শেষে মন্ত্রী মেধাবী শিক্ষার্থীদের মাঝে পুরস্কার বিতরণ করবেন।

এসময় উপস্থিত ছিলেন- এডিসি (শিক্ষা) মনিরা খাতুন,জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও জেলা পরিষদের প্রশাসক ফজলুর রহমান খান ফারুক, টাঙ্গাইল-৬ (দেলদুয়ার-নাগরপুর ) সাংসদ আব্দুল বাতেন, উপজেলা চেয়ারম্যান এসএম ফেরদৌস আহমেদ, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. শাহাদত হোসেনসহ উপজেলা আওয়ামী লীগ ও অঙ্গসংগঠনের নেতারা।






মন্তব্য চালু নেই