মেইন ম্যেনু

মানবতাবিরোধী অপরাধ

পটুয়াখালীর পাঁচ রাজাকারকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ

একাত্তরের মানবতাবিরোধী অপরাধের মামলায় বরিশালের পটুয়াখালী জেলার পাঁচ আসামিকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দিয়েছেন আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল-১।

আসামিরা হলেন- মো. এছহাক সিকদার, আব্দুল গনি, মো.আউয়াল, মো. আব্দুস সাত্তার প্যাদা এবং সোলায়মান মৃধা।

বৃহস্পতিবার রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবীদের আবেদনের প্রেক্ষিতে ট্রাইব্যুনাল-১ এর চেয়ারম্যান বিচারপতি আনোয়ার উল হকের নেতৃত্বে তিন সদস্যের (বিচারপতি শাহিনুর ইসলাম ও বিচারপতি মোহাম্মাদ সোহরাওয়ারদী) ট্রাইব্যুনাল এই আদেশ দেন।

এর আগে আসামীদেরকে ট্রাইব্যুনালের অধীনে গ্রেপ্তার দেখানোর বিষয়ে একটি আবেদনের শুনানি করেন প্রসিকিউটর ব্যারিস্টার তুরিন আফরোজ। তাকে সাহায্য করেন প্রসিকিউটর সুলতানা রেজিয়া।

এর আগে গত ২৯ জুন পটুয়াখালী সদর থানায় (মামলা নং ৪৮) দণ্ডবিধির ধারা ১২০(খ) মোতাবেক পুলিশের গাড়িতে আগুণ এবং কর্তব্যকাজে বাঁধা প্রদানে তাদেরকে গ্রেপ্তার করা হয়।

এই অভিযোগ থেকে যুদ্ধাপরাধী মামলায় ট্রাইব্যুনালের অধীনে গ্রেপ্তার দেখিয়ে ট্রাইব্যুনালে রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবীরা আবেদন করেন।

পরে আসামীদেরকে (ট্রাইব্যুনালের অধীনে) গ্রেপ্তার দেখিয়ে কারাগারে প্রেরণ এবং মামলার অগ্রগতি তদন্ত প্রতিবেদন জমার জন্য আগামী ১ ডিসেম্বর দিন নির্ধারণ করেন ট্রাইব্যুনাল।

উল্লেখ্য, আসামীদের বিরুদ্ধে একাত্তরে হত্যা ও ১৭ জনকে ধর্ষণের অভিযোগ রয়েছে। এর মধ্যে এখনো ৮জন বিরঙ্গণা জীবিত আছেন।






মন্তব্য চালু নেই