মেইন ম্যেনু

পতাকা বৈঠকের মাধ্যমে বাংলাদেশী লাশ হস্তান্তর বিএসএফ’র দুঃখ প্রকাশ

এসএম হাবিব, কালীগঞ্জ (ঝিনাইদহ) প্রতিনিধি : ঝিনাইদহের জেলার মহেশপুরে ভারতীয় সীমান্ত রক্ষী বাহিনী বিএসএফ’র গুলিতে বাংলাদেশি জসিম মন্ডল (২৭) নিহত হওয়ায় দুঃ খ প্রকাশ করেছে সংস্থাটি। শুক্রবার রাত ৮টার দিকে পতাকা বৈঠকের মাধ্যমে লাশ হস্তান্তর অনুষ্ঠানে প্রতিবাদ জানালে দুঃখ প্রকাশ করে বিএসএফ।

বিজিবি’র ৫৮ ব্যাটালিয়নের পরিচালক লে. কর্নেল তাজুল ইসলাম জানান, ‘ভারত সীমান্তে বিএসএফ’র গুলিতে বাংলাদেশি নিহত হওয়ার ঘটনায় সকালে কোম্পানি কমান্ডার পর্যায়ে একটি পতাকা বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। পরে বিকেলে সীমান্তের ৬০/৭ এস পিলালের নিকটবর্তী স্থানে ব্যাটালিয়ান কমান্ডার পর্যায়ে আবারও পতাকা বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। দীর্ঘ সময় বৈঠক শেষে রাত সাড়ে ৮টার দিকে লাশ হস্তান্তর প্রক্রিয়া শেষ হয়। বৈঠকে বিএসএফ দুঃখ প্রকাশ করে অনুপ্রবেশ রোধে সচেতনতা বাড়ানো আহ্বান জানায়।’

বিজিবির পক্ষে নেতৃত্ব দেন বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি) ৫৮ ব্যাটালিয়নের লে, কর্নেল মোঃ তাজুল ইসলাম এবং বিএসএফ পর্যায়ে নেতৃত্ব দেন পশ্চিমবঙ্গের বেনিপুর ৯ বিএসএফ এর কমান্ডার সত্যব্রত মুখার্জী। পরে নিহত জসিম মন্ডলের মরদেহ মহেশপুর থানা পুলিশের উপস্থিতিতে তার স্বজনদের কাছে হস্তান্তর করা হয়।

বৃহস্পতিবার রাতে মহেশপুর সীমান্ত দিয়ে ভারতে গরু আনতে যায় জসিম মন্ডলসহ কয়েকজন। সেখানকার হাজরা ক্যাম্পের কাছে বিএসএফের সঙ্গে কয়েকজন গরু ব্যবসায়ীর মুখোমুখি সংঘর্ষ বাঁধে। এ সময় গরু ব্যবসায়ীরা দুই বিএসএফ সদস্যকে রামদা দিয়ে কুপিয়ে জখম করলে বিএসএফ সদস্যরা গুলি করে। এতে জসিম গুলিবিদ্ধ হয়ে গুরুতর আহত হয়। পরে ভারতের একটি হাসপাতালে নেওয়ার পর জসিম মারা যায়। জসিম চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলার শৈলবলদিয়া গ্রামে দাউদ মন্ডলের ছেলে।






মন্তব্য চালু নেই