মেইন ম্যেনু

পত্নীতলায় ইউএনও হস্তক্ষেপে বাল্য বিয়ের কবল হতে রক্ষা পেলেন শারমিন

মোসা: শিউলি খাতুন, পত্নীতলা (নওগাঁ) প্রতিনিধি: নওগাঁর পত্নীতলায় ইউএনও হস্তক্ষেপে বাল্য বিবাহের কবল হতে রক্ষা পেলেন এক স্কুল ছাত্রী।

ভ্রাম্যমাণ আদালতের বিচারক উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আব্দুল মালেক জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে জানা যায়, বাল্য বিবাহের আনুষ্ঠানিকতা চলছে। এমন ঘটনার প্রেক্ষিতে, উপজেলার সুবরাজপুর গ্রামের পলিপাড়ার সাখাওয়াত হোসেনের ৭ম শ্রেণির স্কুল পড়–য়া ছাত্রী শারমিন আক্তারের (১৩) বাল্য বিবাহ দেওয়ার অপরাধে বরের পিতা ও কনের পিতার কাছ থেকে এক হাজার টাকা করে ও বিবাহ দেওয়ার জড়িত থাকার অপরাধে আরো তিন জনের কাছ থেকে পাঁচ শত করে দেড় হাজার টাকা জরিমানা আদায় করা হয়েছে।

এ সময় বাল্য বিবাহের কুফল সম্পর্কে কনের পিতা-মাতাকে অবগত করা হলে, তাদের মেয়ে শারমিন আক্তারকে ১৮ বছরের নিচে বিবাহ না দেওয়ার অঙ্গিকার পাঠ করেন ও মুচলেকায় সাক্ষর করেন।






মন্তব্য চালু নেই