মেইন ম্যেনু

পরমাণু হামলার হুমকিকে গুরুত্বের সঙ্গে নিল আমেরিকা

আমেরিকার বিরুদ্ধে উত্তর কোরিয়ার পরমাণু হামলার হুমকিকে গুরুত্বের সঙ্গে নিয়েছে ওয়াশিংটন। তবে হুমকি সত্ত্বেও দক্ষিণ কোরিয়ার সঙ্গে পূর্ব ঘোষিত যৌথ সামরিক মহড়া অব্যাহত থাকবে বলে ঘোষণা করেছে আমেরিকা।

গতকাল (সোমবার) আমেরিকা এবং দক্ষিণ কোরিয়ার বিরুদ্ধে নির্বিচারে পরমাণু বোমা হামলার হুমকি দিয়েছিল উত্তর কোরিয়া। ‘কি রিজল্‌ভ’ এবং ‘ফোল ঈগল’ নামের যৌথ মহড়া শুরুর দিনে এ হুমকি দেয় পিয়ংইয়ং।

মার্কিন পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র জন কিরবি বলেছেন, যেকোনো হুমকিকে গুরুত্বের সঙ্গে নেয় আমেরিকা। তবে পিয়ংইয়ংকে উস্কানি দেয়া থেকে বিরত থাকার আহ্বান জানান কিরবি। তিনি দাবি করেন, পিয়ংইয়ং উত্তেজনা সৃষ্টি না করলে দক্ষিণ কোরিয়ার সক্ষমতা বাড়াতে বাধ্য হতো না আমেরিকা।

গতকাল উত্তর কোরিয়া বলেছিল, নির্বিচারে পরমাণু হামলা চালিয়ে আগ্রাসন এবং যুদ্ধে আগ্রহী শক্তিগুলোকে উত্তর কোরিয়ার সামরিক শক্তিমত্তা দেখিয়ে দেয়া হবে। এক বিবৃতিতে দেশটি বলেছে, সামরিক অনুশীলনের আড়ালে দক্ষিণ কোরিয়া ও আমেরিকা পরমাণু যুদ্ধের মহড়া চালাবে। বিবৃতিতে বলা হয়, উত্তর কোরিয়া বোতাম টেপা মাত্রই শত্রুরা নিশ্চিহ্ন হয়ে যাবে, উস্কানি সৃষ্টিকারী ঘাঁটিগুলো আগুনের সাগরে ঢেকে যাবে এবং মুহূর্তের মধ্যেই ছাইয়ে পরিণত হবে।

উত্তর কোরিয়ার প্রভাবশালী জাতীয় প্রতিরক্ষা কমিশন দেশটির সুপ্রিম কমান্ড অব দ্যা কোরিয়ান পিপলস আর্মি বা কেপিএ’র বরাত দিয়ে এ হুমকি দিয়েছে। আই আর আই বি।






মন্তব্য চালু নেই