মেইন ম্যেনু

পরস্ত্রীর প্রেমের টানে দিল্লি থেকে যশোরে

প্রেমের টানে দিল্লি থেকে যশোর অব্দি ছুটে এসেছিলেন আহম্মেদ রাজ (২৮)। প্রেমিকাকে পেয়েছিলেনও একান্তে। কিন্তু তাদের প্রেমের পথে বাঁধা হয়ে দাঁড়ালো বেরসিক পুলিশ। ধরে খাঁচায় ঢুকিয়ে দিলো যুগলকে। পরে জানা গেল, প্রেমিকা কুমারী নন, পরস্ত্রী।

আটক তরুণের নাম আহম্মেদ রাজ (২৮)। তিনি ভারতের রাজধানী নয়াদিল্লির গতিনপুর এলাকার আরমান আলীর ছেলে। আর তরুণী যশোর শহরের পুরাতন কসবা এলাকার এক চাকরিজীবীর স্ত্রী। বছরখানেক আগে ফেসবুকের মাধ্যমে এদের পরিচয় হয়।

যশোর কোতোয়ালী থানার এসআই জিয়ারত হোসেন জানান, ফেসবুকে পরিচয়ের সূত্রে এই দুই নর-নারীর মধ্যে প্রেমজ সম্পর্ক গড়ে ওঠে। গতকাল শুক্রবার বিকালে রাজ আহম্মেদ দিল্লি থেকে যশোরে এসে শহরের এমকে রোডে আরএস হোটেলে ওঠেন। শনিবার দুপুরে হোটেলের একটি কক্ষে তিনি ওই তরুণী গৃহবধূকে হোটেলে নিয়ে আসেন। গোপন খবরের ভিত্তিতে পুলিশ তাদের হোটেল থেকে আটক করে।






মন্তব্য চালু নেই