মেইন ম্যেনু

পরিবারের দাবি:তাশফিন-ফারুক জঙ্গি নয়!

ক্যালিফোর্নিয়া হামলার সঙ্গে তাশফিন মালিক ও তার স্বামী সৈয়দ রিজওয়ান ফারুকের জড়িত থাকার খবরে ‘প্রচণ্ডভাবে আহত’ হয়েছেন তাদের স্বজনরা। ওই দম্পতি যে এ জাতীয় হামলা চালাতে পারে এটা যেন তারা মেনেই নিতে পারছেন না। এমনকি তারা দুজন মিলেই বুধবার সান বার্নারডিনো শহররে ওই হামলা চালিয়েছিল বলে এফবিআই যে দাবি করেছে তাতে সন্দেহ প্রকাশ করেছেন তাদের আইনজীবীরাও।

আইনজীবী ডেভিড চেসলে এবং মোহাম্মদ আবুয়ের সাইদ দাবি করেছেন, তাশফিন ও ফারুক ওই হামলা চালিয়েছিলেন বা কোনো জঙ্গি সংগঠনের সঙ্গে যুক্ত ছিলেন এখনো এমন কোনো প্রমাণ পাওয়া যায়নি। তাই কোনো রকম তথ্য প্রমাণ পাওয়ার আগেই ওই দম্পতির বিরুদ্ধে এ ধরনের অভিযোগ করার বিষয়ে তারা এফবিআই’কে সতর্ক করে দিয়েছেন।

ফারুকোর বোন সায়রা খান সিবিএস নিউজকে বলেছেন,‘আমার ভাই বা ভাবি ওই হামলা চালিয়েছেন তা আমি বিশ্বাস করতে পারছি না। কেননা তারা দুজন দুজনকে ভালোবাসতেন। ছয় মাস বয়সী ফুটফুটে মেয়েকে ঘিরেই ছিল তাদের সুখের সংসার।’ তিনি আরো জানিয়েছেন, ব্যক্তি জীবনে ফারুক ছিলেন বেশ লাজুক। ফলে তার বন্ধু বান্ধব কম ছিল। অন্যদিকে মৃদুভাষী ও নরম স্বভাবের তাশফিন ছিলেনিএকজন দায়িত্ববান গৃহবধু।
তাশফিন সম্পর্কে আইনজীবী ডেভিড চেসলে আরো জানিয়েছেন, তিনি অত্যন্ত রক্ষণশীল নারী। কখনো নিজে গাড়ি চালাতেন না বা পরিবারের পরুষ সদস্যদের সঙ্গে কথা বলতেন। তিনি নিয়মিত বোরখা পড়তেন।
তবে ফারুকের যে দুটি হ্যান্ডগান ছিল সে সম্পর্কে তার পরিবার আগে থেকেই জানত। সম্প্রতি তার সহকর্মীরা তার দাঁড়ি নিয়ে রসিকতা করতে শুরু করেছিল।
ফারুক-মালিক দম্পতি যে বাড়িতে ভাড়া থাকতেন, সেই বাড়ির মালিক ডয়লে মিলার জানান, রেডল্যান্ডসে তাঁর বাড়িটি যখন ওই দম্পতি ভাড়া নেন, তখন দুশ্চিন্তা করার মতো কিছু দেখেননি তিনি। তিনি বলেন, সব খোঁজখবর নেওয়া হয়েছিল। তাঁর লেনদেনসহ সবকিছুই ভালো ছিল।






মন্তব্য চালু নেই