মেইন ম্যেনু

পশ্চিমবঙ্গের দিকে ঘূর্ণিঝড় রোয়ানু

ভারতের উড়িষ্যা থেকে ক্রমেই এবার রাজ্যের উপকূলের দিকে এগোচ্ছে ঘূর্ণিঝড় রোয়ানু। এর প্রভাবে শনিবার দিনভর ভারী থেকে অতিভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে।

পশ্চিমবঙ্গের ৩ জেলা, উত্তর ২৪ পরগনা, দক্ষিণ ২৪ পরগনা এবং পূর্ব মেদিনীপুরে ভারী বৃষ্টিপাতসহ ঝড়ো হাওয়া বয়ে যেতে পারে। শুক্রবার রাত থেকেই কাঁথিতে খোলা হয়েছে বিশেষ কন্ট্রোল রুম। কলকাতায়ও ভারী বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা রয়েছে বলে সতর্ক করেছে আবহাওয়া দপ্তর।

প্রশাসনের পক্ষ থেকে আগেই সতর্কতা জারি করা হয়েছে। জেলেদের সমুদ্রে যেতে নিষেধ করা হয়েছে। বিপর্যয় মোকাবেলার জন্য মজুত রাখা হয়ছে প্রয়োজনীয় ত্রাণ সামগ্রী।

ঘূর্ণিঝড় রোয়ানু আরো ঘনীভূত হয়ে শনিবার বিকেল বা সন্ধ্যা নাগাদ বরিশাল-চট্টগ্রাম উপকূল অতিক্রম করতে পারে। শুক্রবার সন্ধ্যায় আবহাওয়া অধিদফতরের বিশেষ বুলেটিনে এ কথা বলা হয়েছে।

চট্টগ্রাম সমুদ্রবন্দরের পাশাপাশি মংলা ও পায়রা সমুদ্র বন্দরকেও সাত নম্বর বিপদ সংকেত দেখাতে বলা হয়েছে। দুপুরের ১২টার বুলেটিনে এ দুই বন্দরকে ৫ নম্বর বিপদ সংকেত দেখাতে বলা হয়েছিল। তখন মংলা সমুদ্রবন্দর ও পায়রা সমুদ্রবন্দর থেকে রোয়ানু যথাক্রমে ৭শ ৭৫ কিলোমিটার দক্ষিণ-পশ্চিমে এবং ৮শ ১০ কিলোমিটার দক্ষিণ-পশ্চিমে অবস্থান করছিল।

ঘূর্ণিঝড়ের প্রভাবে ব্যাপক হারে ক্ষয়ক্ষতির আশঙ্কা দেখা দিয়েছে সুন্দরবনে। শনিবার রাতেই বাংলাদেশের কক্সবাজারে রোয়ানু আছড়ে পড়বে বলে সতর্কতা জারি করা হয়েছে।



« (পূর্বের সংবাদ)



মন্তব্য চালু নেই