মেইন ম্যেনু

পাঁচ বছর বয়সেই শ্লীলহানিতার শিকার হয়েছিলেন আফ্রিদির প্রেমিকা!

নিজেকে পাকিস্তানের শহীদ আফ্রিদির প্রেমিকা বলে পরিচয় দেয়া আরশি খান আবারও চলে আসলেন খবরের শিরোনামে। নিজের শৈশবের ভয়াবহ এক অভিজ্ঞতার কথা তিনি খোলাখুলি বললেন গণমাধ্যমে। ২২ বছর বয়সী এই ভারতীয় মডেল জানান, মাত্র পাঁচ বছর বয়সেই তিনি শ্লীলহানিতার শিকার হন।

বললেন, ‘এই অপরাধ সংগঠনের মূলে ছিলেন আমাদের বাড়ির পাশেই থাকা এক পারিবারিক বন্ধু। তখন তার বয়স ৪৫, আমার পাঁচ বছর। ওই ঘটনা আমার জীবনে স্থায়ী ভাবে দাগ কেটে যায়, অনেক চেষ্টা করেও ব্যাপারটা আমি ভুলতে পারিনি।’

আরশি জানান, একদিন-দু’দিন নয় মাস ছয়েক ধরে চলে এই অত্যাচার, ‘আমি ওই নিকৃষ্ট লোকটা পৈশাচিক চেহারা কখনও ভুলতে পারবো না। সৌভাগ্যক্রমে, ওই লোক অসুস্থ হয়ে পরিবার নিয়ে দূরে চলে যায়। সে নিজে তিন মেয়ের বাবা। ওই মেয়েগুলোর সাথেও আমার দারুণ শখ্যতা ছিল। আমরা এক সাথে বাড়ির উঠোনে খেলতাম। আমার মনে হয়, ওই লোক নিজের মেয়েদেরও ছাড় দিতেন না।’

আরশি খান সাম্প্রতিক সময়ে কথা বলেছেন ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগ (আইপিএল)। মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স যতবার জিতবে ততবার তিনি নগ্ন অবস্থায় ছবি পোস্ট করবেন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে। ক’দিন আগে শেষ হওয়ার টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপেও একই ভাবে নগ্নতাকে পুঁজি করে আলোচনায় ছিলেন তিনি।

এর আগে প্রকাশ্যেই আরশি খান শহীদ আফ্রিদির সাথে তার শারীরিক সম্পর্কের কথা জানান। এর সাথে এটাও জানিয়েছেন যে, তার পেটে বড় হচ্ছে আফ্রিদির সন্তান। যদিও স্পর্শকাতর এই ইস্যু নিয়ে একেবারেই কথা বলেননি আফ্রিদি।






মন্তব্য চালু নেই