মেইন ম্যেনু

পাংশায় ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত ২

রাজবাড়ী জেলার পাংশা উপজেলায় পুলিশের সঙ্গে কথিত বন্দুকযুদ্ধে কামাল হোসেন কামাল (৪৭) ও ওমর খাঁ (৩৫) নামে দুই ব্যক্তি নিহত হয়েছেন। এ সময় পাংশা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তাসহ (ওসি) পাঁচ পুলিশ সদস্য আহত হয়েছেন।

নিহতরা তালিকাভূক্ত চরমপন্থী নেতা বলে দাবি করেছে পুলিশ।

পাংশা উপজেলার পূর্ব পাট্টা ইউনিয়নের একটি মেহগনি বাগানে বৃহস্পতিবার রাত সোয়া ৩টার দিকে এ ঘটনা ঘটে।এ সময় ঘটনাস্থল থেকে দু’টি ওয়ানশুটারগান, একটি একনালা বন্দুক ও পাঁচ রাউন্ড বন্দুকের গুলি উদ্ধার করেছে পুলিশ।

পুলিশ জানিয়েছে, নিহত কামাল পাংশা থানার সাবেক ওসি মিজানুর রহমান হত্যা মামালার আসামি। চাঞ্চল্যকর সজল হত্যা মামলারও প্রধান আসামি কামাল।

কামাল পাংশা উপজেলার শান্তিখোলা গ্রামের মৃত জিয়াউর মন্ডল জিয়ার ছেলে। নিহত ওমর পাংশা উপজেলার মৌরাট ইউনিয়নের বড় চৌবাড়িয়া চরপাড়া গ্রামের জালাল খাঁর ছেলে।

পাংশা মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবু শ্যামা মো. ইকবাল হায়াত বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান,পাংশা থানার পুলিশ সদস্যরা ওমর ও কামালকে গ্রেফতার করে তাদের স্বীকারোক্তি অনুযায়ী অস্ত্র উদ্ধারের জন্য পূর্ব পাট্টা ইউনিয়নের একটি মেহগনি বাগানে নিয়ে যায়।

এ সময় তাদের সহযোগীরা পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে গুলিবর্ষণ শুরু করে। পুলিশও পাল্টা গুলি করে। এ সময় তিনিসহ পাঁচ পুলিশ সদস্য আহত হন।

ওসি আরও জানান, ডাকাতের গুলিতে আহতাবস্থায় ওমর ও কামালকে রাজবাড়ী সদর হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়।সেখানে জরুরি বিভাগের কর্তব্যরত চিকিৎসক তাদের মৃত ঘোষণা করেন।

লাশের সুরতহাল প্রতিবেদন শেষে ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠানো হবে বলেও জানিয়েছেন ওসি।






মন্তব্য চালু নেই