মেইন ম্যেনু

এশিয়া কাপ-২০১৬

পাকিস্তানকে বিদায় করে ফাইনালে বাংলাদেশ

পাকিস্তানকে ৫ উইকেটে হারিয়ে এশিযা কাপের ফাইনাল নিশ্চিত করেছে স্বাগতিক বাংলাদেশ। টানটান উত্তেজনাপূর্ণ ম্যাচে ১৯.১ ওভারে পাকিস্তানের দেওয়া ১৩০ রানের লক্ষ্য টপকে যায় টাইগাররা। ফলে এশিযা কাপের ফাইনালে মহেন্দ্র সিং ধোনির ভারতের মুখোমুখি হবে মাশরাফিবাহিনী।

এর আগে ১৩০ রানের লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে শুরুতেই উইকেট হারিয়েছে বাংলাদেশ। ইনিংসের ১.৪ ওভারে মোহাম্মদ ইরফানের বলে এলবিডব্লিউ হন ওপেনার তামিম ইকবাল, ৪ বলে ৭ রান সংগ্রহ করেছেন তিনি। পরে সৌম্য সরকার ও সাব্বির রহমান ঘুরে দাঁড়ানোর চেষ্টা চালান। কিন্তু ব্যক্তিগত ১৪ রানে শহীদ আফ্রিদির বলে নবম ওভারের প্রথম বলে আউট হয়ে যান সাব্বির রহমান। তবে অন্যপ্রান্তে ঠিকই সাবলীল ব্যাটিং করে রানের চাকা গতিশীল রেখেছিলেন ওপেনার সৌম্য সরকার। কিন্তু ১৩.২ ওভারে ব্যক্তিগত ৪৮ রানে আমিরের বলে বোল্ড হয়ে যান তিনি। পরের ওভারে মুশফিকুর রহিমও শোয়েব মালিকের এলবিডব্লিউ এর শিকার হন। ১৪.২ ওভারে বাংলাদেশের সংগ্রহ ৪ উইকেটে ৮৮ রান।

এর আগে টসে জিতে প্রথমে ব্যাট করতে নেমে ইনিংসের শুরুতেই বাংলাদেশি বোলারদের আক্রমণের মুখে কোণঠাসা হয়ে পড়েছিল শহীদ আফ্রিদির পাকিস্তান। পাকিস্তানের ব্যাটিং লাইনে প্রথম আঘাত হেনেছিলেন পেসার আল আমিন, দ্বিতীয় ওভারের প্রথম বলেই খুররম মনজুরকে উইকেটকিপার মুশফিকুর রহিমের তালুবন্দি করান তিনি। পরে চতুর্থ ওভারের পঞ্চম বলে পাকিস্তানের আরেক ওপেনার সারজিল খানকে বোল্ড করেন স্পিনার আরাফাত সানি।

এদিকে অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজা পঞ্চম ওভারের পঞ্চম বলে মোহাম্মদ হাফিজকে এলবিডব্লিউ এর ফাঁদে ফেলেন। পরে নবম ওভারের দ্বিতীয় বলে তাসকীন আহমেদের বলে সাকিব আল হাসানের ক্যাচে পরিণত হন উমর আকমল।

তবে ৮.২ ওভারে ২৮ রানে ৪ উইকেট হারানো পাকিস্তানকে ম্যাচে ফিরিয়েছিলেন শোয়েব মালিক ও সরফরাজ আহমেদ। পরে ১৬.৪ ওভারে আরাফাত সানি শোয়েব মালিককে সাব্বিরের ক্যাচে পরিণত করে এ জুটি ভাঙ্গেন। শোয়েব মালিক ৩০ বলে ৪১ রান সংগ্রহ করেন। পরে অন্য ব্যাটসম্যানরা তেমন সুবিধে করতে না পারলেও একপ্রান্ত আগলে রেখে সরফরাজ আহমেদ ৪২ বলে ৫৮ রান সংগ্রহ করেন। ৫ চার ও ১ ছক্কায় ইনিংসটি সাজিয়েছেন তিনি। আর তার এ হাফসেঞ্চুরিতে ভর করেই নির্ধারিত ২০ ওভারে ৭ উইকেট হারিয়ে ১২৯ রান সংগ্রহ করে পাকিস্তান। বাংলাদেশের পক্ষে আল আমিন হোসেন ৩ উইকেট নিয়েছেন।

মিরপুর শের-ই-বাংলা ক্রিকেট স্টেডিয়ামে বুধবার সন্ধ্যা সাড়ে ৭টায় এশিয়া কাপ টি২০ ক্রিকেটের এ গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচটি শুরু হবে।

এর আগে চার বছর আগে প্র্রথমবারের মতো এশিয়া কাপের ফাইনালে উঠলেও পাকিস্তানের কাছে ২ রানে হেরে শিরোপার স্বপ্ন ভেস্তে গিয়েছিল বাংলাদেশের।

তবে এখনো পর্যন্ত চলতি আসরে পাকিস্তানের তুলনায় এগিয়ে আছে স্বাগতিকরা। ৩ ম্যাচের দুটিতে জয় পাওয়া মাশরাফিরা এ ম্যাচে জয় পেলে ফাইনাল খেলা নিশ্চিত করবে।

এদিকে ইনজুরির কারণে এ ম্যাচে বাংলাদেশের কাটার মাস্টার মুস্তাফিজকে বিশ্রাম দেওয়া হয়েছে। তার পরিবর্তে স্পিনার আরাফাত সানিকে দলে নেওয়া হয়েছে। এছাড়া এবারের আসরে প্রথমবারের মত ড্যাশিং ওপেনার তামিম ইকবালকে দলে নেওয়ায় বাদ পড়েছেন নুরুল হাসান সোহান। তার পরিবর্তে দীর্ঘদিন পর উইকেটকিপারের দায়িত্ব পালন করছেন মুশফিকুর রহিম।

অন্যদিকে ভারতের বিপক্ষে হেরে কিছুটা পিছিয়ে আছে পাকিস্তান। ফাইনালের লড়াইয়ে টিকে থাকতে তাই এ ম্যাচে জয়ের বিকল্প নেই তাদের সামনে।

উল্লেখ্য, ৩ ম্যাচের ৩টিতে জিতে ইতোমধ্যে ফাইনাল নিশ্চিত করেছে ভারত।






মন্তব্য চালু নেই