মেইন ম্যেনু

পাকিস্তানে ‘গৃহশিক্ষিকা চেয়ে বিজ্ঞাপন’-এর আড়ালে দেহব্যবসা

ম্যাসেজ পার্লারের আড়ালে নয়। পত্র মিতালি নয়। নেটে সরাসরি আমন্ত্রণও নয়। পাকিস্তান জুড়ে চলছে এখন নতুন উপায় দেহ ব্যবসা। বিজ্ঞাপন দিয়ে বলা হচ্ছে গৃহশিক্ষক/শিক্ষিকা চাই। সে জাতীয় বিজ্ঞাপনে খুব ইঙ্গিতপূর্ণভাবে বলা হচ্ছে। রুচিশীল, ভদ্র, যে কোনও বিষয়ে সুশিক্ষা দিতে পারা এমন দক্ষ সুন্দর/সুন্দরী ক্যানডিডেট চাই। আসলে লাহোর, করাচি সহ পাকিস্তানের বিশ কিছু শহরে দেহব্যবসার রমরমা এতটা বাড়াবাড়ি জায়গায় যায় যে প্রশাসন বিরোধী ক্ষোভ শুরু হয়।

মিডিয়ায় ক্রমাগত প্রচারের পর নড়চড়ে বসে প্রশাসন। হোটেল, ম্যাসেজ পার্লারে নিয়মিত পুলিশি হানা শুরু হয়। সংবাদপত্র, ইন্টারনেটে বিজ্ঞাপনের ওপর নজরদারি করা হয়। এতে রমরমা বন্ধ না করা গেলেও কিছুটা নিয়ন্ত্রণ হয়। তবে দেহব্যবসার সঙ্গে জড়িতরা তাদের বিজ্ঞাপনের ধরন বদলে নিয়ে আসে এমন উপায়। যেখানে গৃহশিক্ষকতার নামে দেহব্যবসায়ীদের ঘরে পৌঁছে দেওয়ার বিজ্ঞাপন শুরু হয়েছে।






মন্তব্য চালু নেই