মেইন ম্যেনু

পাকিস্তানে ভার্সিটিতে হামলা, অধ্যাপকসহ নিহত ২০

পাকিস্তানের উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলের চরসাদ্দা এলাকায় বাচা খান বিশ্ববিদ্যালয়ে আজ বুধবার বন্দুকধারীরা হামলা চালিয়েছে। বিশ্ববিদ্যালয়টির উপাচার্যের বরাত দিয়ে বিবিসি এ খবর জানিয়েছে। ডন নিউজের সূত্রে জানা যায়, রসায়ন বিভাগের একজন অধ্যাপকসহ এই হামলায় ২০ জন নিহত হয়েছে।

ধারণা করা হচ্ছে, এখনও বিশ্ববিদ্যালয়ের ভেতরে আট থেকে দশজন হামলাকারী রয়েছে।

দি এক্সপ্রেস ট্রিবিউনের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, প্রাথমিকভাবে আটজন আহত হয়েছে বলে জানা যায়। এদের মধ্যে তিনজন শিক্ষার্থী। স্থানীয় জেলা হাসপাতালে তাদের ভর্তি করা হয়েছে এবং স্থানীয় সকল হাসপাতালে জরুরি অবস্থা জারি করা হয়েছে। ঘটনাস্থলে সেনাবাহিনী পৌঁছেছে।

পুলিশ জানায়, বন্দুকধারী এক ব্যক্তি সকালে বিশ্ববিদ্যালয় এলাকায় প্রবেশ করে। বিশ্ববিদ্যালয়ের ভেতর থেকে দুটি বিস্ফোরণের আওয়াজ শোনা গিয়েছে।

তিনি আরও বলেন, বিশ্ববিদ্যালয়ের দুজন নিরাপত্তারক্ষী আহত হয়েছেন। গোলাগুলি এখনও চলছে।

জিও টিভির প্রতিবেদনে বলা হয়, স্থানীয় সময় সকাল সাড়ে নয়টায় বন্দুকধারীরা বিশ্ববিদ্যালয়টির ভেতরে ঢুকে পড়ে। পুলিশ পুরো এলাকা ঘিরে রেখেছে। শিক্ষক, কর্মচারী-কর্মকর্তা এবং শিক্ষার্থীরা বিশ্ববিদ্যালয়ের ভেতরে আটকা পড়েছে।

বাচা খান বিশ্ববিদ্যালয় পেশোয়ার থেকে ৫০ কিলোমিটার দূরে চরসাদ্দা এলাকায় অবস্থিত।

বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য ফজল রাহেম মারওয়াত বলেন, গোলাগুলি এখনও চলছে। হামলায় কী ধরনের ক্ষয়ক্ষতি বা প্রাণহানির ঘটনা ঘটেছে, সেটা এখনই বলা যাচ্ছে না।

উপাচার্য আরও বলেন, ঘটনার সময় তিন হাজারের বেশি শিক্ষার্থী বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে উপস্থিত ছিলেন। এমনকি হোস্টেলে অনেক ছাত্রী রয়েছে। ভবনের ভেতরে আটকা পড়েছে ৫০ জনের মতো কর্মকর্তা-কর্মচারী।

ইংরেজি বিভাগের শিক্ষক সাবির খান বলেন, ‘আমি ডিপার্টমেন্ট থেকে ক্লাসের দিকে যাচ্ছিলাম, সেই সময়ে গোলাগুলি শুরু হয়। ঘটনার সময়ে বেশিরভাগ শিক্ষার্থী ক্লাসে ছিলেন।’






মন্তব্য চালু নেই