মেইন ম্যেনু

পাক সচিবের ব্রিফিং: বের করে দেয়া হলো ভারতীয় সাংবাদিককে

যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্কে পাকিস্তানের পররাষ্ট্র সচিবের এক সংবাদ ব্রিফিং থেকে ভারতীয় গণমাধ্যম এনডিটিভির এক সাংবাদিককে বের করে দেয়া হয়েছে। সোমবার ওই সাংবাদিককে বের করে দেয়ার খবরটি প্রকাশ করে এনডিটিভি।

জাতিসংঘের সাধারণ অধিবেশনের ফাঁকে নিউইয়র্কের রুজভেল্ট হোটেলের একটি কক্ষে সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করেছিলেন পাকিস্তানের পররাষ্ট্র সচিব আইজাজ আহমেদ চৌধুরী। পাকিস্তানের পররাষ্ট্র সচিবের এই ব্রিফিংয়ে কাশ্মিরের উরির হামলায় পাকিস্তানের জড়িত থাকার প্রসঙ্গ টেনে এনডিটিভির এক সাংবাদিক প্রশ্ন করলে উত্তেজনা তৈরি হয়। এ সময় পাক পররাষ্ট্র সচিব এনডিটিভির সাংবাদিক নম্রতা ব্রারকে উদ্দেশ্য করে বলেন, ‘আইএসএস ইন্ডিয়ান কো নিকালো(ভারতীয়কে বের করে দাও)।’

এনডিটিভির প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, সংবাদ সম্মেলনে একজন ভারতীয় সাংবাদিককেও উপস্থিত থাকতে দেয়া হয়নি। এই ঘটনা দুই দেশের সম্পর্কের মারাত্মক অবক্ষয়ের প্রতিফলন।

গত রবিবার ভোরে ভারতের কাশ্মীরের উরির এক সেনাঘাঁটিতে জঙ্গি হামলায় ১৮ জন সেনা সদস্য নিহত হয়। জৈশ-ই-মোহাম্মদ নামে একটি জঙ্গি সংগঠন এই হামলা চালিয়েছে বলে ভারত দাবি করেছে। আর এই সংগঠনটির প্রধান মাসুদ আজহার পাকিস্তানের নাগরিক।

এই হামলার সঙ্গে পাকিস্তান জড়িত থাকার বিষয়টি কৌশলে এড়িয়ে গেছেন পাকিস্তানের নেতারা।

জাতিসংঘের সাধারণ অধিবেশনে যোগ দিতে পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী নেওয়াজ শরীফ বর্তমানে নিউইয়র্ক আছেন। উরির হামলার ঘটনা নিয়ে ভারতের এক সাংবাদিক তাকে প্রশ্ন করতে চাইলে নওয়াজ শরীফও এড়িয়ে যান। পারমানবিক শক্তিধর এই দুই প্রতিবেশি দেশের মধ্যে উরির ঘটনা নিয়ে উত্তেজনা তৈরি হয়েছে। ঠিক এমন সময়ই এই ঘটনা ঘটলো।

ভারত-পাকিস্তান চলমান সঙ্কট নিরসনে যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্রমন্ত্রী জন কেরি এবং ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী থেরেসা মে’র সঙ্গে পৃথক বৈঠকে সহযোগিতা কামনা করেছেন নেওয়াজ শরিফ।

এদিকে, ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি তার শীর্ষ মন্ত্রীদের সঙ্গে গতকাল সোমবার এক বৈঠকে বসেন। সেখানে তিনি সাফ জানিয়ে দিয়েছেন, পুরো বিশ্ব থেকে পাকিস্তানকে বিচ্ছিন্ন করতে ভারতকে উদ্যোগী হতে হবে।






মন্তব্য চালু নেই