মেইন ম্যেনু

কলারোয়ায় টানা বর্ষণ

পানিতে নিমজ্জিত স্কুল-মাদরাসা ও স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ॥ ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে শিক্ষার্থীদের পড়া-লেখা

টানা বর্ষণে সাতক্ষীরার কলারোয়ায় পানিতে নিমজ্জিত হয়েছে স্কুল-মাদরাসা-স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স, বাড়ি-ঘরসহ কয়েক হাজার বিঘা ফসলি জমি। বর্ষা মৌসুম আসলেই যেন কলারোয়ার জনপদ হুমকিতে পড়ে পানিবন্দি হয়ে পড়ার ভয়ে। শুধু ভয়-ই নয়, রীতিমত প্রতিবছরের এ সময়ে উপজেলার অনেক এলাকার স্কুল-মাদরাসাসহ বহু ফসলি জমি ও বসতবাড়ি পানিবন্দি হয়ে পড়ে। তার ব্যতিক্রম হলো না এবারো।

উপজেলার প্রায় প্রতিটি ইউনিয়নে-ই কমবেশি পানিবন্দি হয়ে পড়েছে স্কুলসহ ফসলি জমি কিংবা বসতবাড়ি। বেশি ক্ষতিগ্রস্ত শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের মধ্যে রয়েছে উপজেলার সরসকাটি ইউনাইটেড মাধ্যমিক বিদ্যালয়, গাজনা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, পৌরসদরের বেত্রবতী আদর্শ মাধ্যমিক বিদ্যালয়, দেয়াড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, শহিদ জিয়া দাখিল মাদরাসা, সরসকাটি স্বাস্থ্য কমপ্লেসহ আরও অনেক প্রতিষ্ঠান।

সরেজমিন ক্ষতিগ্রস্ত এলাকা ঘুরে জানা গেছে, সরসকাটি ইউনাইটেড মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের মাঠসহ বিদ্যালয়ের নিচতলার বারান্দা কপোতাক্ষের উপচে পড়া পানিতে তলিয়ে গেছে। ফলে শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা পানি ভেঙ্গে বিদ্যালয়ে প্রবেশ করে অতি কষ্টে পাঠদান কার্যক্রম চালাচ্ছে। এমনিভাবে পানির মধ্যে আসা-যাওয়া করতে থাকলে অসুস্থ হয়ে পড়ার সমূহ সম্ভাবনা আছে বলে জানান বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ইবাদুল হক। এদিকে, কলারোয়া পৌরসদরের বেত্রবতী আদর্শ মাধ্যমিক বিদ্যালয়টি প্রতি বছরের মতো এবারও টানা বর্ষণে বিদ্যালয়ের মাঠসহ যাওয়া আসার রাস্তায় পানি উঠে গেছে। পানি উঠার ফলে শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের আসা-যাওয়ার পথে প্রতিনিয়ত ভিজতে হচ্ছে। আর এজন্য অনেক শিক্ষার্থী অসুস্থ হয়ে পড়ছে। তাছাড়া, বিদ্যালয় মাঠ পানিবন্দি থাকায় বছরের প্রায় ৬ মাস ছাত্রসমাবেশ কিংবা খেলা-ধূলাসহ অন্যান্য কাজ কর্মে দারুন অসুবিধা হয়।

অবহেলিত এ বিদ্যালয়ের দুর্দশার খবর একাধিকার বিভিন্ন মিডিয়ায় এ প্রকাশিত হলেও আজও পর্যন্ত মাঠে মাটি ভরাট কিংবা বিদ্যালয়ের জরাজীর্ণ টিনশেডের ভৌত অবকাঠামো নির্মাণের কোন উদ্যোগ নেওয়া হয়নি। যার ফলে বিদ্যালয়ের প্রায় ৪শ শিক্ষার্থী একটু বৃষ্টি হলেই ভিজে পড়ে ক্লাস করে চলেছে। এ ব্যাপারে বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক রাশেদুল হাসান কামরুল স্থানীয় সংসদ সদস্য এড. মুস্তফা লুৎফুল্লাহ, কলারোয়া উপজেলা চেয়ারম্যান ফিরোজ আহম্মেদ স্বপন ও ভাইস চেয়ারম্যান আমিনুল ইসলাম লাল্টুসহ সংশ্লিষ্ট সকলের আন্তরিক সহযোগিতা কামনা করেছেন।






মন্তব্য চালু নেই