মেইন ম্যেনু

পানির দাবিতে ছাত্রীদের বিক্ষোভ

বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের (বাকৃবি) ছাত্রীদের শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব হলের বর্ধিত অংশ চাষী ভবনে শনিবার সকাল থেকে পানির সরবরাহ বন্ধ থাকায় ও নিরাপত্তাসহ বিভিন্ন সমস্যায় রাত সাড়ে ৮টার দিকে বিক্ষোভ করে ওই হলের ছাত্রীরা। পরে বিশ্ববিদ্যালয়ের সহকারী প্রক্টর অধ্যাপক ড. আজহারুল ইসলাম ও হলের প্রভোস্ট অধ্যাপক মহিউদ্দিন আহমেদ ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে বিষয়টির সুরাহা করেন।

জানা যায়, ২০১৫-১৬ শিক্ষাবর্ষে প্রায় ৪৫শতাংশ মেয়ে শিক্ষার্থী ভর্তি হয়। ছাত্রী সংখ্যা বেশি হওয়ায় ৩টি ছাত্রী হলে সিট দিতে না পেরে ক্যাম্পাসের শেষ মোড় সংলগ্ন চাষী ভবন ও হেলথ কেয়ারের তৃতীয় তলায় থাকার ব্যবস্থা করে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন। চাষী ভবনে ৯২জন ছাত্রীকে ওঠানো হয়।

সেখানে ছাত্রীদের যেমন নেই পর্যাপ্ত নিরাপত্তা ব্যবস্থা তেমনি হলের বিভিন্ন সুযোগ-সুবিধা থেকে বঞ্চিত হচ্ছেন। সেখানে পানি ও নিরাপত্তার ব্যবস্থা না করেই তাদের রাখা হয়। খাবার আনতে হয় অন্য হল থেকে। ঝাড়–দার ও বাথরুম পরিস্কারের জন্য নেই কোন লোক। এমন বিভিন্ন সুযোগ-সুবিধা থেকে বঞ্চিত হচ্ছে ওই হলের ছাত্রীরা।

শিক্ষার্থীরা অভিযোগ করেন, সকাল থেকে পানির সরবরাহ বন্ধ থাকলে হলের কর্তব্যরত কর্মচারীদের বারবার অভিযোগ দেওয়া সত্বেও কতৃপর্ক্ষ কোন ব্যবস্থা নেয়নি।

এবিষয়ে হলের প্রভোস্ট অধ্যাপক মহিউদ্দিন আহমেদ বলেন, পানির লাইনে সমস্যা থাকায় পানি সরবরাহ বন্ধ ছিল। পরে বিষয়টির জানার পর তা ঠিক করে দেওয়া হয়।






মন্তব্য চালু নেই