মেইন ম্যেনু

পানির স্বাদে চমক নিয়ে আসুন স্বাস্থ্যকর ৫টি উপায়ে

পানি শরীরের অন্যতম উপাদান। আমাদের শরীরের ৫৫ থেকে ৭৮ শতাংশ পর্যন্ত পানি থাকে। শরীর সুস্থ রাখতে প্রতিদিন ৮ থেকে ১০ গ্লাস পানি পান করা উচিত। অনেকের মাঝে পানি পানে অনীহা দেখা যায়। বিশেষত শিশুরা পানি পান করতে চায় না। পানিকে মজাদার করে তোলা হলে বড় ছোট সবাই পানি পানে আগ্রহ হয়ে উঠবে। তাহলে পানিকে মজাদার করার স্বাস্থ্যকর কিছু উপায় জেনে নেওয়া যাক।

১। লেবু

লেবু শুধু পানির স্বাদ বৃদ্ধি করে না, এটি ক্যালসিয়াম, পটাশিয়াম, ম্যাগনেশিয়াম, আয়রন, ভিটামিন, ফাইবার এবং কার্বোহাইড্রেটের উৎস। এটি ওজন কমাতেও সাহায্য করে। একটি বড় জগে পানি ভর্তি করুন এতে দুটি লেবু পাতলা পাতলা করে কেটে দিয়ে দিন। এরসাথে কিছু পুদিনা পাতা মেশান। ফ্রিজে ২-৩ ঘন্টা রেখে দিন। তারপর সারাদিন এটি পান করুন। আপনি এরসাথে কয়েক টুকরো বরফ মেশাতে পারেন।

২। তরমুজ

তরমুজ এমন একটি ফল যার ৯২% পানি। এছাড়া ক্যালসিয়াম, ম্যাগনেসিয়াম, রিহাইড্রেটিং সল্ট রয়েছে। তরমুজ পানি উচ্চ রক্তচাপ, বডি ফ্যাট নিয়ন্ত্রন করতে সাহায্য করে। একটি জারে পানি দিয়ে দিন। এরসাথে তরমুজের টুকরো মেশান। আপনি চাইলে এরসাথে কয়েকটি পুদিনা পাতা মেশাতে পারেন। ২-৩ ঘণ্টা ফ্রিজে রাখুন। সারাদিন এই পানি পান করতে পারেন।

৩। দারুচিনি

অ্যান্টিমাইক্রোবিয়াল, অ্যান্টি ইনফ্লামেটরি এবং অ্যান্টি ক্লটিং উপাদান সমৃদ্ধ দারুচিনি পানির স্বাদ বৃদ্ধি করে থাকে। পানির মধ্যে এক টুকরো দারুচিনি দিয়ে দিন। এই পানি সারারাত ফ্রিজে রাখুন। পরের দিন সকালে এটি পান করুন। এছাড়া পানির সাথে দারুচিনি মিশিয়ে ১০ মিনিট জ্বাল দিন। এক কাপ পানিতে এক টুকরো দারুচিনি ব্যবহার করুন। ঠান্ডা হলে এটি পান করুন। এরসাথে বরফ মেশাতে পারেন।

৪। শসা

পানি সমৃদ্ধ আরেকটি খাবার হল শসা। শসাতে রয়েছে ভিটামিন কে, বি৬, আয়রন, কপার, অ্যামিনো অ্যাসিড, ফাইবার, পটাশিয়াম, ম্যাগনেসিয়াম, ফসফরাস, বায়োটিন এবং স্যালিক। ওজন হ্রাস, রক্তচাপ হ্রাস করে শসা পানি বেশ কার্যকর। শসার খোসা ছাড়িয়ে কেটে নিন। একটি জগে পানি ভর্তি করে এরসাথে শসার টুকরোগুলো মেশান। সারারাত ফ্রিজে রেখে দিন। পরের দিন এটি পান করুন।

৫। স্ট্রবেরি

পানির স্বাদ বৃদ্ধি করে এমন আরেকটি ফল হল স্ট্রবেরি। এর ৯২ শতাংশই পানি। একটি পাত্রে কিছু পরিমাণ স্ট্রবেরি টুকরো করে নিন। এরসাথে পানি ও বরফের টুকরো মেশান। এটি ২-৩ ঘন্টা ফ্রিজে রাখুন। তারপর পান করুন।






মন্তব্য চালু নেই