মেইন ম্যেনু

পানি খেয়েই কমিয়ে নিন বাড়তি মেদ

জল খেয়েও ওজন বাড়ছে চড়চড় করে? ফিকর নট, তবে জল খেয়েই কমিয়ে নাও বাড়তি মেদ৷ এই ড্রিঙ্কে ওজন কমবে চটজলদি, রইল ড্রিঙ্কস-এর রেসিপি যা দিয়ে মেদ ঝরবে জলের গতিতে…৷

তোমাদের জন্য রইল বেশ কয়েকটা দুর্দান্ত বাড়িতে বানানো ড্রিঙ্কস-এর রেসিপি যা খেলেই তোমার ওজন

ড্রিঙ্ক ১:ink

উপকরণ- শসা, পাতিলেবুর চাকা চাকা করে কাটা, আদা কুচি এবং দারচিনির টুকরো, পুদিনা পাতা
কী করবে- এক বোতল জলের মধ্যে এই সব জিনিস একসঙ্গে ভিজিয়ে রাখো। সারা রাত রেখে দাও। পরের দিন সকালে উঠে জলটা ছেঁকে বের করে নাও। সারাদিন ধরে যখন ইচ্ছে হবে এই ড্রিঙ্কটা খেতে পার। কিছুদিনের মধ্যেই দেখবে ওজন ঝরছে ঝরঝর করে!

ড্রিঙ্ক ২:
উপকরণ- আনারস টুকরো করে কাটা, আদা কুচি, মধু, পাতিলেবুর রস এবং পুদিনা পাতা
কী করবে- পাতিলেবুর রস ছাড়া সব উপকরণ জলের মধ্যে দিয়ে ভাল করে গুলে নাও। বেশ অনেকক্ষণ পরে জলটা ছেঁকে বের করে নিয়ে এক চামচ পাতিলেবুর রস তার সঙ্গে মিশিয়ে নিয়ে খেতে পার।

ড্রিঙ্ক ৩:
উপকরণ- ১/৪ চামচ গোলমরিচ গুঁড়ো, তিন টেব্ল চামচ পাতিলেবুর রস আর এক টেব্ল চামচ মধু
কী করবে- সব উপকরণ একসঙ্গে মিশিয়ে ড্রিঙ্কটা তৈরি করে রেখে দাও। এক থেকে দু’মাস দিনে দু’বার করে নিয়মিত এই ড্রিঙ্ক খেলে ওজন কমতে বাধ্য। বিশেষ করে তোমার প্রধান শত্রু যদি হয় পেটের মেদ।

ড্রিঙ্ক ৪:
কী করবে- টমেটোটা মিক্সারে হালকা গরম জলের সঙ্গে ব্লেন্ড করো। তারপর ছেঁকে নিয়ে মধু মিশিয়ে নাও বা গোলমরিচ গুঁড়ো মেশাতে পার। সকালে উঠে খালি পেটে এই ডিটক্স ড্রিঙ্কটি ঢকঢক করে খেয়ে নেওয়ার অভ্যেস করলে সুফল পাবে এক থেকে দু’মাসের মধ্যেই!

ড্রিঙ্ক ৫:
উপকরণ- আধ টেব্ল চামচ কারি পাতা বাটা, আধ টেব্ল চামচ পাতিলেবুর রস, আধ টেব্ল চামচ মধু
কী করবে- সব উপকরণ হালকা গরম জলের সঙ্গে মিশিয়ে রোজ সকালে খালি পেটে খেতে হবে। টানা তিনমাস এই অভ্যেস করলে তুমি ফ্যাট টু ফিট হবে নিশ্চিত।

এই সব ড্রিঙ্কগুলো শরীরকে ডিটক্স করতে সাহায্য করে। তাই ওজন কমানোর পাশাপাশি কোনও ড্রিঙ্ক ব্লাড সুগার লেভেল কমায় তো আবার কোনওটা কোলেস্ট্রল। তাই ফিট চেহারার সঙ্গে পেয়ে যাবে ফিটম ফিট স্বাস্থ্য একদম ফ্রি ফ্রি ফ্রি!






মন্তব্য চালু নেই