মেইন ম্যেনু

পানি থেকে উড়াল দেবে ড্রোন

বিজ্ঞানীরা থ্রিডি প্রিন্টার থেকে এমন ড্রোন তৈরি করলেন যা পানির ভেতর থেকে আকাশে উড্ডয়ন করতে পারে। এমনি করে আকাশ থেকে পানিতে অবতরণ করতে পারবে।

বিশেষভাবে তৈরি এই ড্রোনটি টানা দুইমাস পানির নিচে ডুব দিয়ে থাকতে পারবে। নোনা জলেও এই ড্রোনের কোন ক্ষতি করতে পারে না। একটি সুইচের সাহায্যে এবং কমান্ড পেলেই এটি গভীর জল থেকে আকাশে উড়াল দিতে পারে।

জন হপকিন্সের ফলিত পদার্থ বিজ্ঞান গবেষণাগারে এই ড্রোনটি বানানো হয়েছে। এতে আকাশে ওড়া এবং সাবমেরিনের মতো পানির নিচে থাকার প্রযুক্তি ব্যবহার করা হয়েছে।

থ্রিডি প্রিন্টারে তৈরি এই ড্রোনটি পানি নিরোধক। এটাকে এমনভাবে সিল করা হয়েছে যে, পানি ইঞ্জিনের ভেতরে প্রবেশ করতে না পারে।

এই ড্রোনের নির্মাতা জন হপকিন্স বলেন, ‘কম খরচেই এই ড্রোন বানানো সম্ভব।’ ড্রোনটি বানানোর পর দুমাস পর্যন্ত একে পানির নিচে রাখা হয় এবং দুমাস পরেও এই ড্রোনটি পানি থেকে আকাশে ওড়তে সক্ষম হয়।

ড্রোনটি তৈরি করতে কী ধরণের যন্ত্রাংশ ব্যবহার করা হয়েছে তা নির্দিষ্ট করে প্রকাশ করা হয়নি। তবে আকাশে ওড়ার সাথে সাথে পানিতে ঢুবে থেকেও অক্ষত থাকার জন্য প্রযুক্তি যে এতে ব্যবহৃত হয়েছে তাতে কোন সন্দেহ নেই।

যুদ্ধক্ষেত্রে ও মিসাইল চালানোর ক্ষেত্রে এই ড্রোন কার্যকরী ভূমিকা রাখতে সক্ষম। এ ধরণের ডিভাইস ভবিষ্যতের প্রযুক্তির জন্য সম্পদ হিসেবে পরিগণিত হবে বলে মন্তব্য করেছেন বিজ্ঞানীরা।

দেখুন ভিডিওতে:






মন্তব্য চালু নেই