মেইন ম্যেনু

পাবনার গুমানীতে পানি বৃদ্ধিতে ফসল তলিয়ে যাওয়ার আশংকা

উত্তরাঞ্চলের সব নদীতে পানি বাড়ছে। উজানের বর্ষণ আর পাহাড়ি ঢলের কারণে যমুনাসহ অন্যান্য নদীর পানি বৃদ্ধির প্রভাব পড়ছে চাটমোহরের গুমানী নদীতেও। প্রতিদিন পানি বাড়ছে। এভাবে পানি বাড়তে থাকলে কয়েক দিনের মধ্যে নিরাঞ্চলের গ্রামগুলোতে পানি প্রবেশ করবে। ইতোমধ্যে উপজেলার নিমাইচড়া ও হান্ডিয়াল ইউনিয়নের মাঠগুলোতে বর্ষার পানি প্রবেশ করেছে।

কিনু সরকারের জোলার স্লুইচগেট বন্ধ থাকলেও পানি প্রবেশ করছে বিলে। অস্বাভাবিক ভাবে পানি বৃদ্ধি অব্যাহত থাকায় নদী ভরে গেছে। নদীর পানি বৃদ্ধির সাথে জড়িত রয়েছে এ অঞ্চলের হাজার হাজার মানুষের ভাগ্য। গুমানী নদীর পানি ভাটির দিকে না গিয়ে ধাবিত হচ্ছে উজানের দিকে। চাটমোহর উপজেলা কৃষি অফিস সূত্রে জানা গেছে, বিলে পানি পরলেও এখন পর্যন্ত তেমন ক্ষতি হয়নি।

তবে পানি বৃদ্ধি অব্যাহত থাকলে জমির নাবি আমন ধান পানির নিচে তলিয়ে যাওয়ার আশঙ্কা করা হচ্ছে। উপজেলা কৃষি অফিসের এস ও (তথ্য) আসাদুজ্জামান জানান, বোরো ধান কাটার পর যেসকল জমিতো আমন ধান বপন করা হয়েছিল খরার কারণে সে সকল জমির ধান বাড়তে পারেনি।

তাই বিলে অরেকটু বেশি পানি হলে কিছু জমির ধান, তিল, সবজি জাতীয় ফসল পানিতে তলিয়ে যাবে। কৃষকরা জানান, ইতোমধ্যে ফসলি জমিতে পানি ঢুকেছে।






মন্তব্য চালু নেই