মেইন ম্যেনু

“পারফেক্ট” সমুচা তৈরি করুন বাড়িতেই!

চলুন, আমরা জেনে নিই শান্তে মজুমদারের পারফেক্ট বিফ সমুচা তৈরির রেসিপি। দোকানের মত সমুচা বাড়িতে তৈরির এর চাইতে দারুণ রেসিপি হয় না।

উপকরণ

পুর তৈরির উপকরণ-

গরুর মাংসের কিমা -২ কাপ

আদা বাটা -১ চা চামচ

রসুন বাটা -১ চা চামচ

গরম মশলা গুঁড়ো -১ চিমটি

গোল মরিচ গুঁড়ো – ১/২ চা চামচ

কাঁচা মরিচ কুচি -২ চা চামচ

পেঁয়াজ কুচি -১ কাপ

পুদিনা পাতা কুচি- ২ চা চামচ

লবণ – স্বাদ মতো

তেল – পরিমাণ মতো

সমুচার ডো তৈরির উপকরণ-

ময়দা -2 কাপ

লবণ-স্বাদ মতো

পানি-মাখাতে যতটুকু লাগে

প্রণালি

-কিমার সাথে পেঁয়াজ কুচি, পুদিনা পাতা ,কাঁচা মরিচ বাদে সব উপকরণ এক সাথে মাখিয়ে চুলায় বসিয়ে ঢেকে অল্প আঁচে রান্না করতে হবে ১৫/২০ মিনিট। ঢাকনা উঠিয়ে চুলার আঁচ বাড়িয়ে দিয়ে আলাদা করে রাখা পেঁয়াজ,পুদিনা ,কাঁচা মরিচ দিয়ে নেড়ে নামিয়ে রাখতে হবে।

-এখন ময়দার সাথে লবণ, অল্প পানি দিয়ে মেখে সাধারণ রুটির মতো করে ডো করে নিতে হবে।

-এখন এই ডো থেকে ছোট ছোট বল বানিয়ে তা থেকে রুটি বানাতে হবে।

-একটি রুটি নিয়ে তার উপর ময়দার গুঁড়ো অল্প ছিটিয়ে দিয়ে তার উপর টেল মাখিয়ে আর একটি রুটি দিয়ে চেপে দিন। পুনরায় ময়দার গুঁড়ো ,তেল মাখিয়ে আরেকটি রুটি দিন। এভাবে সব রুটি একসাথে করে আবার বেলে নিন। এবার আরো একটু বড় করে বেলে নিতে হবে।

-এবার ননস্টিক তাওয়ায় হাল্কা করে এপাশ ওপাশ দুপাশ ভাজতে হবে, খেয়াল রাখতে হবে যাতে নরমাল রুটি ভাচার মতো না হয়ে যায় কাচা ভাবটা যাতে থাকে।

-এখন এই রুটিকে মাঝখান বরাবর লম্বা করে কেটে নিতে হবে। ঠিক একই ভাবে অপর দিকও কেটে নিতে হবে। ৩ কোণা শেপ হবে প্রতিটি রুটির টুকরো।

-এবার খুব সাবধানে রুটি গুলো থেকে প্রতিটি পার্ট থেকে আলাদা করে ছুটিয়ে নিতে হব।

-এখন একটি করে অংশ নিয়ে পানের খিলির মতো ভাজ দিয়ে ভেতরএ কিমার পুর দিয়ে বাড়়তি অংশ( আটা পানি দিয়ে গুলিয়ে ) আটার গোলা দিয়ে আটেক দিতে হবে।

-সব শেষে গরম তেলে ভেজে পরিবেশন করুন মজার স্বাদের বীফ সমুচা।






মন্তব্য চালু নেই