মেইন ম্যেনু

পার্টিতে এই নায়িকাকে জোর করে চুমু খেলেন সুশান্ত? বিনিময়ে নায়িকা যা করলেন

‘এম এস ধোনি, দ্য আনটোল্ড স্টোরি’-র পর সুশাস্ত সিংহ রাজপুত ব্যস্ত ছিলেন কৃতি শ্যাননের সঙ্গে পরের ছবির শ্যুটিং-এ। বছর শেষে এখন একটু ছুটি পেয়েছেন। আর সেই ছুটির ফাঁকেই সুশান্ত মেতেছিলেন ক্রিসমাস পার্টিতে। শুধু সুশান্ত সিংহ নন, পার্টিতে হাজির ছিলেন বলিউডের সব তাবড় ব্যক্তিত্বরা। ছিলেন প্রীতি জিন্টা, এষা গুপ্তা, জারিন খান। ডিনো মোরিয়া, হিমেশ রেশমিয়া, রণদীপ হুড়া, নীল নিতিন মুকেশ, রেমো ডিসুজারা। এঁদের সামনে সুশান্ত সিংহ রাজপুত যা করলেন তাতে সকলেই ‘মাগো’ বলে চিৎকার ছাড়ার জোগাড় করেছিলেন।

ওই পার্টিতে অন্যদের মতো এসেছিলেন ‘এম এস ধোনি, দ্য আনটোল্ড স্টোরি’-র নায়িকা কিয়ারা আডবাণী। ওই ছবিতে কিয়ারা সাক্ষী ধোনির চরিত্রে অভিনয় করেছিলেন। কিয়ারাকে দেখে আর স্থির থাকতে পারেননি সুশান্ত। একদম ঝাঁপিয়ে পড়ে তাঁকে ঝাপটে ধরে সমানে চুমু খেতে থাকেন। সকলে সুশান্তের অবস্থা দেখে হাঁ।

খানিক পরে দেখা গেল নায়ক-নায়িকা একে-অপরকে জড়িয়ে ধরেছেন। একসঙ্গে সেলফি তুলছেন। কিয়ারা তো আবার চোখ মারার ভঙ্গিমায় সুশান্তের সঙ্গে একাধিক সেলফিও তুললেন।

কিয়ারাই ভাঙলেন সুশান্তের এমন আচরণের হেতুটা। কিয়ারা জানান, আসলে ‘এম এস ধোনি, দ্য আনটোল্ড স্টোরি’ মুক্তির পর এই প্রথম তাঁদের দেখা হল। তাই সুশান্ত ও কিয়ারা একে অপরকে দেখে স্থির থাকতে পারেননি। কিয়ারার দাবি, ‘এম এস ধোনি’-র শ্যুটিং-এ তাঁদের মধ্যে এত গভীর বন্ধুত্ব হয়েছিল যে তা ভোলার নয়। সুশান্ত নানাভাবে তাঁর পিছনে লাগতেন। সম্পর্ক যেন এমনই সুন্দর থাকে— পার্টিতে থাকা অনেককে নাকি একথা বলেন কিয়ারা।

পরে এই ছবি নিজের ইনস্টাগ্রাম অ্যাকাউন্টেও পোস্ট করেন কিয়ারা। সেখানে তিনি ক্যাপশন দেন, ‘সাক্ষাৎ-এ আমরা কী করতে পারি এটা তার প্রমাণ। আসলে এটা হল সুসঅ্যাটাক।’ যদিও, অনেকে কিয়ারার এমন সহজ সরল মন্তব্যে অন্য গন্ধ পাচ্ছেন। কিন্তু, তেমন কোনও গল্পকে পাত্তা দিতে রাজি নন কিয়ারা।






মন্তব্য চালু নেই