মেইন ম্যেনু

পিয়েরো হত্যাচেষ্টা মামলায় শরিফুলের স্বীকারোক্তি

দিনাজপুরের কাহারোলের ইসকন মন্দিরে বোমা হামলা ঘটনায় গ্রেফতার শরিফুল ইসলাম (২৪) ইতালিয়ান পাদ্রি ডা. পিয়েরো পারোলারি (৫০) কে হত্যাচেষ্টার স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন।

বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় শরিফুলের স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি রেকর্ড করেছেন আদালত।

শুক্রবার দুপুরে ইতালির নাগরিককে হত্যাচেষ্টা মামলার তদন্ত কর্মকর্তা গোয়েন্দা পুলিশ ( ডিবি) ওসি রেজওয়ানুল রহিম জানান, দিনাজপুর অতিরিক্ত চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের বিচারক আহসানুল হকের আদালতে বিদেশি নাগরিককে গুলি করার স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন শরিফুল।

তিনি আরো জানান, এই হত্যাচেষ্টায় ব্যবহৃত মোটরসাইকেলটিও উদ্ধার করেছে গোয়েন্দা পুলিশ।

দিনাজপুর কোর্ট পুলিশের পরিদর্শক আবু সাইদ সরকার বলেন, কাহারোলের জয়নন্দ ইসকন মন্দিরে বোমা হামলার ঘটনায় গ্রেফতার শরিফুলকে রিমান্ড শেষে বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় আদালতে হাজির করা হয়। তিনি দিনাজপুর সদরের মির্জাপুর বিআরটিসি কাউন্টার রোডে ইতালির নাগরিক ডা. পিয়েরো পারোলারির ওপর গুলি করা ও সরাসরি জড়িত থাকার কথা স্বীকার করেন।

গত ১০ ডিসেম্বর কাহারোলের ইসকন মন্দিরে বোমা হামলা করে পালিয়ে যাওয়ার সময় কাহারোল জয়নন্দ বাজার সংলগ্ন ঢাকাইয়াপট্টি গ্রামের লোকেরা জেএমবি সদস্য শরিফুলকে আটক করে পুলিশে সোপর্দ করে। শরিফুল গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জ উপজেলার মনোহরপুর ইউনিয়নের মনোহরপুর গ্রামের শওকত আলীর ছেলে।

এর আগে গত ১৮ নভেম্বর সকাল সাড়ে ৭টায় বাইসাইকেলে কর্মস্থলে যাওয়ার পথে শহরের মির্জাপুর বিআরটিসি বাস কাউন্টার সংলগ্ন এলাকায় ইতালির নাগরিক পিয়েরোকে অজ্ঞাত দুর্বৃত্তরা গুলি করে পালিয়ে যায়। আহত অবস্থায় তাকে দিনাজপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। পরে একই দিন উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে ঢাকার সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে পাঠানো হয়।






মন্তব্য চালু নেই