মেইন ম্যেনু

‘পুতুল নেবে গো পুতুল’

ডেভিড ক্রিস্টোফার৷ মালয়েশিয়ায় সবার মুখে মুখে এখন এই একটাই নাম৷ ডেভিড ‘দ্য পোকেমন সেলার’৷ হ্যাঁ, এই পুতুল বিক্রেতাই রাতারাতি জায়গা করে নিয়েছেন সোশ্যাল মিডিয়ায়৷ বিষয়টা একটু খুলেই বলি আপনাদের৷

না, আড়াইশ’ খানা পোকেমন সফট্ টয়েজ বিক্রি করার কথা মোটেই ছিল না তার৷ একজন তাকে এই পোকেমন সফট্ টয়েজ-এর অর্ডার দিয়েছিলেন, পরবর্তীকালে যা কেনেননি তিনি৷ লিউকিমিয়ায় আক্রান্ত ডেভিডের মাথায় যা বাজ ভেঙে পড়ারই সমান৷ একদিকে নিজের চিকিৎসা, অন্যদিকে ছেলের পড়াশোনার খরচ৷

দুই দিক সামলাতে গিয়েই ডেভিডকে নিতে হয় এই সিদ্ধান্ত৷ তার সফট্ টয়েজ দমনসারা প্রান্তবর্তী এক বসতি এলাকায় বিক্রির সিদ্ধান্ত নেন৷ আর সেখান থেকেই তিনি উঠে আসেন খবরে৷

তার প্রচেষ্টায় যেমন কোনো ত্রুটি ছিলনা, তেমনই ভাগ্যদেবীও ছিলেন সুপ্রসন্ন৷ তাই মুহুর্তেই মধ্যেই সব পোকেমন বিক্রি হয়ে যায়, যা একপ্রকার রেকর্ড গড়ে তোলে বলাই যায়৷ ডেভিডকে সাহায্য করতে কেউ এক, কেউবা একাধিক পোকেমন সফট্ টয়েজ কিনেছেন৷ শুধু তাই নয়, ডেভিডের এই ঘটনা ছড়িয়ে পড়ে সোশ্যাল মিডিয়াতেও৷ চতুর্দিকে যখন শুধুই রক্তের খেলা, ঠিক তখনই এমন সব ঘটনা যেন, একটু অক্সিজেন এনে দেয় সবার মনে৷-কলকাতা২৪






মন্তব্য চালু নেই