মেইন ম্যেনু

পুত্র-কন্যাকে নিয়ে গর্বিত বাবা পঙ্কজ কাপুর

বলিউডে কাপুর পরিবারের জৌলুস নিয়ে সবারই কম বেশী জানা আছে। কিন্তু এত প্রভাব থাকার পরেও কোনো ধরনের পারিবারিক সহযোগিতা ছাড়াই অভিনয় জগতে নিজেদের অবস্থান পাকাপোক্ত করেছেন কাপুর পরিবারের অন্যতম হার্টথ্রব অভিনেতা শহীদ কাপুর! এবার বড় ভাই শহীদের দেখানো পথে কারো সহযোগিতা ছাড়াই বলিউডে পা রাখলেন শহীদ ভগ্নি সানা কাপুর। আর সন্তানদের এমন কাজে অভিভূত তাদের পিতা পঙ্কজ কাপুর। শুধু অভিভূতই নন, বরং সন্তানদের এহেন কার্যে তিনি গর্বিতও!

জানা গেছে, প্রথমবার একই সিনেমায় নিজের ছেলে ও মেয়ের সাথে ‘শানদার’ নামের একটি ছবিতে অভিনয় করলেন শহীদ কাপুরের বাবা পঙ্কজ কাপুর। নিজের ছেলে মেয়েদের সাথে একই অভিনয় নিয়ে বেশ উচ্ছ্বসিত পঙ্কজ। বিশেষ করে আজকে বলিউডে শহীদ নিজ যোগ্যতা আর দক্ষতায় যে অবস্থান তৈরি করেছেন তাতে বাবা হিসেবে খুবই গর্বিত পঙ্কজ কাপুর। শহীদ বিষয়ে কথা বলার এক প্রসঙ্গে সম্প্রতি তিনি একটি সাক্ষাৎকারে বলেন, শহীদ তার নিজ যোগ্যতায় বলিউডে তার অবস্থান তৈরি করে নিয়েছে। তার প্রাপ্য সে নিজেই ভোগ করবে, কিন্তু তার এমন অসাধারণ নৈপুন্যে বাবা হিসেবে সত্যিই আমি গর্বিত। ক্যারিয়ার শুরুর আগে তাকে আমি সাপোর্টের প্রয়োজনের কথাও বলেছিলাম। কিন্তু শহীদ নিজেই দেখিয়ে দিয়েছে তার সক্ষমতা।

শহীদ-সানা নিজের দুই সন্তানের সাথে প্রথমবার অভিনয়ের অভিজ্ঞতা সম্পর্কে পঙ্কজ আরো বলেন, হ্যাঁ, এই ছবিতে আমার মেয়ে সানার অভিষেক হল। ‘শানদার’-এ আমি শুধুমাত্র একটা সাপোর্টিভ রোল করেছি। শহীদ এই ছবির হিরো, আর আমার মেয়েও গুরুত্বপূর্ণ একটি চরিত্রে অভিনয় করল। সব মিলিয়ে আমরা গোটা পরিবারই আসলে ছবিতে ছিলাম। এটা সত্যিই অসাধারণ সময় ছিল।’

পঙ্কজ কাপুর

উল্লেখ্য, সর্বশেষ শহীদ কাপুরকে বিশাল ভরদ্বাজের আলোচিত ও বাণিজ্যিসফল ছবি ‘হায়দার’-এ দেখা গিয়েছিল। তাও সেটা ২০১৪ সালে। এরপর ‘অ্যাকশন জ্যাকসন’-এ বিশেষ উপস্থিতি থাকলেও চলতি বছরে কোনো ছবি মুক্তি পায়নি তার। মুক্তির প্রতীক্ষায় থাকা ছবি ‘শানদার’ অক্টোবরের ২৩ তারিখে মুক্তি পেতে যাচ্ছে। এই ছবিতে শহীদ ও সানা কাপুর ছাড়াও হিরোইনের ভূমিকায় শহীদের বিপরীতে প্রথমবার দেখা যাবে আলিয়া ভাটকে।






মন্তব্য চালু নেই