মেইন ম্যেনু

পুরুষ ঠকানোর অভিযোগে পাক অভিনেত্রীকে গ্রেপ্তারের নির্দেশ

পাকিস্তানি বিতর্কিত অভিনেত্রী ও মডেল মীরা খানের বিরুদ্ধে পরকিয়া এবং ঠকবাজির মামলা হওয়ায় তার বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করেছে লাহোরের একটি আদালত।

জানা গেছে, বিয়ের পর অন্য পুরুষের সাথে সম্পর্ক এবং ঠকবাজির জন্য মীরার বিরুদ্ধে আদালতে অভিযোগ দায়ের করেছেন মীরার স্বঘোষিত স্বামী আতিকুর রহমান নামের একজন। তিনি দাবি করেছেন, মীরা তাকে বিয়ে করবেন বলে আইনি প্রতিশ্রুতি দিয়েও ২০১৩ সালে বিয়ে করেন ক্যাপ্টেন নাভিদ পারভেজকে আবার নাভিদের সঙ্গে বৈবাহিক সম্পর্ক টিকিয়ে রেখেও অন্য আরেকজন পুরুষকেও বিয়ের আইনি প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন।

স্বঘোষিত স্বামী আতিকুর রহমানের মামলার পর লাহোর ক্যান্টনমেন্টের দায়রা বিচারক মীরাকে আদালতে হাজিরা দেওয়ার জন্য বহুবার নির্দেশ দিলেও মীরা আসেননি। তারপর আদালত ১২ জুন শুক্রবার তার বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করে , এবং ১৭ জুলাই পরবর্তী শুনানির দিন আদালতে পেশ করতে পুলিশকে নির্দেশ দেয়।

এসব বিষয় জানতে পাকিস্তানি সংবাদ মাধ্যম হাজির হয় মীরার কাছে, কিন্তু তিনি এই বিষয়ে আদালত থেকে কোনো নোটিশ পাননি বলে জানান। উল্টো তিনি বলেন, আমি বা আমার আইনজীবী, কেউই নোটিশের ব্যাপারে কিছু জানি না। অভিযোগকারী আতিকুরকে তিনি চেনেন না বলে দাবি করে মীরা বলেন, লোকটি প্রতারক। আমায় গত ৫ বছর ধরে ব্ল্যাকমেল করে চলেছে। হয়ত প্রচার পাওয়ার জন্য আবার আমার নামে নতুন অভিযোগ দায়ের করেছে।

উল্লেখ্য, পাকিস্তানি এই বিতর্কিত অভিনেত্রী ‘নজর’, ‘কাসক’-এর মতো কয়েকটি বলিউডের ছবিতে অভিনয় করেছেন।






মন্তব্য চালু নেই