মেইন ম্যেনু

পুলিশি নির্যাতনের প্রতিবাদে সমাবেশ করবে গণজাগরণ মঞ্চ

পাকিস্তানি দূতাবাস ঘেরাও কর্মসূচিতে পুলিশের বাধা ও কর্মী-সমর্থকদের নির্যাতনের প্রতিবাদে ‘প্রতিবাদী গণসমাবেশ’ করবে গণজাগরণ মঞ্চ। শুক্রবার বিকেল ৩টায় শাহবাগ প্রজন্ম চত্বরে এ সমাবেশ হবে।

বৃহস্পতিবার গণজাগরণ মঞ্চের মুখপাত্র ডা. ইমরান এইচ সরকার এ কর্মসূচি ঘোষণা করেন।

তিনি বলেন, ‘পাকিস্তান কর্তৃক মুক্তিযুদ্ধের সময় সংগঠিত গণহত্যার দায় অস্বীকার, জঙ্গিদের মদদ ও বাংলাদেশি কূটনীতিক মৌসুমী রহমানকে বহিস্কারের ধৃষ্টতা দেখানোর প্রতিবাদে বুধবার গণজাগরণ মঞ্চের ‘পাকিস্তানি দূতাবাস ঘেরাও’ কর্মসূচিতে বাধা দেয় পুলিশ। বিনাউস্কানিতে শান্তিপূর্ণ কর্মসূচিতে পুলিশের হামলায় গণজাগরণ মঞ্চের বেশ কয়েকজন কর্মী আহত হন। চারজন কর্মী-সমর্থককে আটক করে পুলিশ।

‘বাংলাদেশের আত্মমর্যাদা রক্ষার এই স্বতঃস্ফূর্ত শান্তিপূর্ণ কর্মসূচিতে বাধা এবং ন্যক্কারজনক হামলা করে বাংলাদেশের সার্বভৌমত্বের প্রশ্নে নতজানু হওয়ার কুদৃষ্টান্ত আবারও স্থাপন করল প্রশাসন। যে পুলিশ বাহিনী জনগণের জানমালের নিরাপত্তার দায়িত্বে নিয়োজিত থাকার কথা, তারা যেভাবে দেশ ও জনগণের নিরাপত্তা বিঘ্নিত করার ষড়যন্ত্রে লিপ্ত, পাকিস্তানি দূতাবাসের নিরাপত্তা দেওয়ার নামে সাধারণ মানুষকে যে নির্যাতন করেছে, তা সত্যিই নিন্দনীয়।’

ঘেরাও কর্মসূচির আগেই কর্মীদের গ্রেফতার এবং শান্তিপূর্ণ কর্মসূচি চলাকালীন পুলিশের ধাওয়া ও হামলার পরিপ্রেক্ষিতে ইমরান এইচ সরকার বলেন, ‘আপনারা একদিকে জঙ্গি দমনে জিরো টলারেন্সের কথা বলবেন, অন্যদিকে জঙ্গিবাদের আস্তানা রক্ষা করতে সাধারণ মানুষকে নির্যাতন করবেন, এভাবে জঙ্গিবাদ দমন সম্ভব নয়।’






মন্তব্য চালু নেই