মেইন ম্যেনু

নেতা গ্রেপ্তারের প্রতিবাদ

পুলিশ-বিএনপি নেতাকর্মী গোলাগুলি

সোনাগাজী উপজেলার মতিগঞ্জ ইউনিয়নের বিএনপির সাবেক সাধারণ সম্পাদক আলী আহম্মদকে পুলিশ গ্রেপ্তার করে থানায় নিয়ে আসার সময় পুলিশ ও তার সমর্থকদের মধ্যে ব্যাপক গুলিবিনিময় ও ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া হয়। এতে ৪ পুলিশসহ ১০ আহত হয়।

শুক্রবার বিকেল সাড়ে ৪ দিকে মতিগঞ্জ ইউনিয়নের ভাদাদিয়া গ্রামে এঘটনা ঘটে।

আহতরা হলেন- সোনাগাজী থানা পুলিশের উপপরিদর্শক (এসআই) নাসির আহম্মদ, সহকারী উপপরিদর্শক (এএসআই) মনিরুল ইসলাম, কনস্টেবল আবদুল ওহাব ও মোসলেম মিয়া। আসামি আলী আহম্মদ, তার সমর্থক ফরহাদ, বাবলু, হৃদয়, দুলাল আহত হন। আহতদের সোনাগাজী স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ও ফেনী সদর হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে।

সোনাগাজী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) হারুন অর রশীদ জানান, সোনাগাজীসহ বিভিন্ন থানার ২২ মামলার পলাতক আসামি আলী আহম্মদকে বিকেলে গ্রেপ্তার করে থানায় নিয়ে আসার সময় তার সমর্থকরা পুলিশ বহনকারী অটোরিকশা অবরুদ্ধ করে ফেলে। একপর্যায়ে সিএনজি ভাঙচুর করে পুলিশকে লক্ষ্য করে ককটেল ও গুলি ছোড়ে। পুলিশ সদস্যরা আত্মরক্ষার্থে ২৫ রাউন্ড শটগানের গুলি ছোড়ে। এতে ৪ পুলিশ সদস্য আহত হয়।






মন্তব্য চালু নেই