মেইন ম্যেনু

পৃথিবীর দিকে ধেয়ে আসছে ভয়ঙ্কর ধূমকেতু-গ্রহাণু

মাস দেড়েকের মধ্যে পৃথিবীতে আছড়ে পড়তে পারে ভয়ংকর দু’টি মহাজাগতিক বস্তু। নাসার মহাকাশযান- ‘নিওওয়াইজ’ থেকে প্রাপ্ত ছবি ও তথ্যমতে বিজ্ঞানীরা বলছেন এ দুই মহাজগতিক বস্তুর একটি ভয়ঙ্কর গ্রহাণু বা অ্যাস্টারয়েড। অন্যটি ধূমকেতু। তাদের মতে বহু দূর থেকে যাকে ‘গ্রহাণু’ বলে মনে করা হচ্ছে, তা একটি ধূমকেতুও হতে পারে।

জ্যোতির্বিদরা বলছেন, ঠিক মাস দেড়েকের মধ্যে প্রায় একই সঙ্গে ‘হামলা চালাতে’ পৃথিবীর কক্ষপথে ঢুকে পড়বে এ দু’টি অচেনা, অজানা মহাজাগতিক বস্তু।

গ্রহাণুটি ছুটে আসছে বৃহস্পতির পাশ কাটিয়ে গ্রহাণুপুঞ্জ ও মঙ্গলের কক্ষপথ ছুঁয়ে পৃথিবীর দিকে। এই গ্রহাণুটির আবিষ্কার হয়েছে সদ্যই। ২০১৬’র ২৭ নভেম্বরে। এর নাম দেয়া হয়েছে, ‘2016-WF9’। গ্রহাণুটি আকারে বেশ বড়। লম্বায় ০.৩ থেকে ০.৬ মাইল বা আধ কিলোমিটার থেকে ১ কিলোমিটার মতো।

অন্য আগন্তুকটি একটি ধূমকেতু। নাসার মহাকাশযান ‘নিওওয়াইজ’-এর টেলিস্কোপের নজরে পড়েছে তা এই গ্রহাণুটির হদিশ মেলার ঠিক এক মাস আগে। এই ধূমকেতুটির নাম দেয়া হয়েছে- ‘C/2016 U1 NEOWISE’।

বিজ্ঞানীরা অবশ্য বলছেন, এই দুই বস্তু নিয়ে আশংকার কিছু নেই। তবে ভয়ঙ্কর কিছু ঘটবে না তেমনটাও জোর দিয়ে বলতে পারছেন না তারা। এখন সময়েই বলে দিবে এ দুই মহাজাগতিক বস্তু আমাদের পৃথিবীকে পাশ কাটিয়ে যায় কিনা।






মন্তব্য চালু নেই