মেইন ম্যেনু

পে-স্কেলের গেজেট যে কোনো সময়

মন্ত্রিসভায় অনুমোদিত অষ্টম বেতন কাঠামোর (পে-স্কেল ) গেজেট আজ মঙ্গলবার যে কোনো সময় প্রকাশ করা হতে পারে। এ ব্যাপারে চূড়ান্ত প্রস্তুতি চলছে বলে জানা গেছে। অর্থমন্ত্রণালয় সূত্রে একথা জানা গেছে।

তবে গেজেট যখনই প্রকাশ করা হোক না কেন গত জুলাই মাস থেকেই এটা কার্যকর হবে।

মন্ত্রিসভায় অনুমোদনের পর নতুন বেতন স্কেল নিয়ে নানা অসন্তোষ দেখা দেয়।

জানা যায়, পে-স্কেলের গেজেট নিয়ে গতকাল সোমবার এ সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটিতে বিস্তারিত আলোচনা হয়।পরীক্ষা নিরীক্ষা শেষে মন্ত্রিসভা কমিটি তা অনুমোদন দিয়ে অর্থমন্ত্রণালয় পাঠায়।

মঙ্গলবার সকালে এর আইনি দিক পরীক্ষা করে দেখার জন্য আইন মন্ত্রণালয়ে পাঠানো হয়।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, বেতন স্কেলের গেজেট প্রকাশের আগে এর আইনি দিক পরীক্ষা নীরিক্ষার জন্য এটি এখন আইনমন্ত্রণালয়ে রয়েছে।

আইনমন্ত্রণালয় থেকে সেটি গেজেট আকারে প্রকাশের জন্য ফের অর্থমন্ত্রণালয়ে যাবে।একটি সূত্র জানিয়েছে, নতুন বেতন স্কেলের গেজেট প্রকাশের জন্য চেষ্টা চলছে।আজও এটি প্রকাশ হতে পারে।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্ত্বে মন্ত্রিসভার বৈঠকে নতুন বেতন স্কেল অনুমোদন দেয়ার পর থেকেই সিকেলশন গ্রেড ও টাইমস স্কেলসহ নানা জটিলতা তৈরি হয়।

আর এসবের সুরাহা করতে দিয়ে গেজেট প্রকাশে বিলম্ব হয়। তবে গতমাসে অর্থমন্ত্রী বলেছিলেন যাই হোক নভেম্বরেই গেজেট প্রকাশিত হবে।

প্রসঙ্গত, গত ৭ সেপ্টেম্বর অষ্টম জাতীয় বেতন কাঠামো অনুমোদন দেয় মন্ত্রিসভা। এতে সর্বোচ্চ বেতন ৭৮ হাজার টাকা (নির্ধারিত) ও সর্বনিম্ন আট হাজার ২৫০ টাকা নির্ধারণ করা হয়েছে। আগের মতো ২০টি গ্রেড বহাল রাখা হলেও এতে টাইমস্কেল ও সিলেকশন গ্রেড বাদ দেয়া হয়।

নতুন বেতন কাঠামোয় বিলুপ্ত করা হয়েছে শ্রেণীপ্রথা। কর্মকর্তা-কর্মচারীরা এখন গ্রেড দিয়ে পরিচিত হবেন। চতুর্থ শ্রেণীর একজন কর্মচারী ২০ গ্রেডের কর্মচারী হিসেবে পরিচিত হবেন।

নতুন বেতন কাঠামোয় অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে ‘বাংলা নববর্ষ ভাতা’। মূল বেতনের ২০ শতাংশ হারে এই ভাতা পাবেন সরকারি কর্মকর্তা ও কর্মচারীরা।






মন্তব্য চালু নেই