মেইন ম্যেনু

পোস্টার লাগানোয় ঢাবি ছাত্রদল নেতাকে মারধর করে পুলিশে সোপর্দ

অর্থপাচার মামলায় বিএনপির সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমানকে সাত বছরের সাজা দেয়ার প্রতিবাদ সম্বলিত পোস্টার লাগাতে গিয়ে আটক হয়েছেন এক ছাত্রদল নেতা।

শনিবার ( ২৩ জুলাই ) রাত পৌনে ১১টার সময় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কার্জন হল এলাকা থেকে তাকে মারধরের পর পুলিশের কাছে সোপর্দ করেছে ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরা। আটককৃত ছাত্রদল নেতার নাম নূরে আলম ইমন। তিনি ফজলুল হক মুসলিম হলের ৪র্থ বর্ষের শিক্ষার্থী ও ছাত্রদলের হল কমিটির সদস্য।

প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা যায়, কার্জন হল এলাকায় ‘তারেক রহমানের বিরুদ্ধে মিথ্যা ষড়যন্ত্রমূলক রায় ঘোষণার প্রতিবাদে ছাত্র ধর্মঘট’ লেখা পোস্টার ও ব্যানার লাগাতে যায় কয়েকজন ছাত্রদল নেতা । খবর পেয়ে ফজলুল হক হলের ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরা তাদেরকে ধাওয়া দিয়ে নূরে আলম ইমনকে আটক করে। পরে তাকে মারধর করে শাহবাগ থানা পুলিশের হাতে হস্তান্তর করা হয়।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে শাহবাগ থানার ওসি আবু বকর সিদ্দিক বলেন, এক ছাত্রদল কর্মীকে ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা দিয়েছে। আমরা যাচাই করতেছি, পুরনো কোনো ঘটনার সাথে সংশ্লিষ্টতা আছে কি না। নতুন কোনো মামলা দেয়া হবে না বলেও নিশ্চিত করেন তিনি।

উল্লেখ্য, তারেক রহমানকে সাজা দেয়ার প্রতিবাদে রোববার সারা দেশের সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে ছাত্রধর্মঘট ডেকেছে ছাত্রদল।






মন্তব্য চালু নেই