মেইন ম্যেনু

পোড়ানো হলো ১০৫ টন হাতির দাঁত

ট্রাকে করে এনে সাজানো হচ্ছে হাতির দাঁত বা আইভরির স্তূপ। সব মিলিয়ে ১০টি স্তূপ প্রস্তুত। না, এগুলো রপ্তানি করা হবে না। চোরাই পশু শিকারিদের কাছ থেকে জব্দ করা এসব হাতির দাঁত পুড়িয়ে ফেলা হবে। তাই এগুলো শনিবার জড়ো করা হয়েছিল কেনিয়ার নাইরোবি ন্যাশনাল পার্কে।

076

জড়ো করা হাতির দাঁতগুলোর ওজন ১০৫ টন। এতগুলো দাঁতের জন্য হত্যা করতে হয়েছে ৭ হাজার হাতিকে। আর এসব দাঁতের আনুমানিক মূল্য ৬ কোটি ৮০ লাখ মার্কিন ডলার।

22

কেনিয়ার প্রেসিডেন্ট উহুরু কেনিয়াত্তা প্রথম আগুন জ্বালিয়ে হস্তিদন্ত বহ্নুৎসবের সূচনা করেন। এ সময় তিনি হাতি রক্ষায় হস্তিদন্ত বাণিজ্য পুরোপুরি নিষিদ্ধের দাবি জানান। তিনি বলেন, ‘কেউ কেনিয়ায় হাতির দাঁতের ব্যবসা করতে পারবে না। এর বাণিজ্য মানে হচ্ছে মৃত্যু। আমাদের হাতির মৃত্যু এবং আমাদের ঐতিহ্যের মৃত্যু’।

পুরো আফ্রিকায় সাড়ে চার থেকে পাঁচ লাখ হাতি রয়েছে । কিন্তু প্রতিবছর এখানে ৩০ হাজারেরও বেশি হাতি শিকার করা হয়। এশিয়ার ক্রমবর্ধমান হাতির দাঁতের চাহিদা মেটাতেই হাতি হত্যা করা হয়। কালোবাজারে এক কেজি দাঁতের দাম ১ হাজার ডলার।

1






মন্তব্য চালু নেই