মেইন ম্যেনু

প্যারিসে আত্মঘাতী হামলাকারী নারী ছিল না

ফ্রান্সের রাজধানী প্যারিসের সঁ দেনিসের একটি ভবনে বুধবার পুলিশের অভিযান চালানোর সময় সেখানে আত্মঘাতী বোমারু নারী ছিলেন না। ওই বোমারু পুরুষ ছিল বলেই ধারণা করা হচ্ছে। শুক্রবার ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম ইন্ডিপেন্ডেন্ট এ তথ্য জানিয়েছে।

এর আগে বলা হয়েছিল ওই ভবনে অভিযানের সময় হাসনা আইটবুলাসেন নামের একজন নারী আত্মঘাতী হামলাকারী বোমা বিস্ফোরণ ঘটিয়েছিলেন।

কিন্তু শুক্রবারই পুলিশ সেই বক্তব্য থেকে সরে এসেছে।

পুলিশ জানিয়েছে, ওই ভবনে শুক্রবার তৃতীয় আরো একজনের মৃতদেহ পাওয়া গেছে। তবে তার পরিচয় সম্পর্কে নিশ্চিত হওয়া যায়নি।

বুধবার সঁ দেনিসের যে ভবনটিকে ঘিরে জঙ্গিদের সঙ্গে পুলিশের তীব্র লড়াই হয়েছে, সেখান থেকে উদ্ধার করা হয় হাসনা আইটবুলাসেনের মৃতদেহ।

প্রথমে পুলিশ ধারণা করেছিল, তার দেহের সঙ্গে একটি আত্মঘাতী বোমার বেল্ট বাঁধা ছিল। অভিযান চলার সময় ওই বোমার বিস্ফোরণ ঘটানো হয়।

ধারণা করা হচ্ছে, হাসনা আইটবুলাসেন হচ্ছেন প্যারিসে সন্ত্রাসী হামলার ‘মূল পরিকল্পনাকারী’ আবদেলহামিদ আবাউদের দূরসম্পর্কিত আত্মীয়। বুধবারের অভিযানে আবদেলহামিদ আবাউদ নিহত হন।

হাসনা আইটবুলাসেনের যেভাবে আত্মঘাতী বোমারু হিসেবে বর্ণনা করা হচ্ছিল, সেটি নিয়ে আগেই সন্দেহ প্রকাশ করেছিলেন তার ঘনিষ্ঠ বান্ধবী খেমিসা।

খেমিসা বলেছেন, ‘হাসনা জীবনকে ভালোবাসত। আমার মনে হয় না আত্মঘাতী বোমারু হওয়ার কোনো ইচ্ছে তার ছিল। কেউ হয়তো শেষ মুহূর্তে ওকে প্রভাবিত করেছে।’






মন্তব্য চালু নেই