মেইন ম্যেনু

প্রকাশ্যে অস্ত্র নিয়ে ভোট চাচ্ছেন আ.লীগ প্রার্থীর লোকজন

নির্বাচনের আগে লাইসেন্স করা সব ধরনের অস্ত্র জেলা প্রশাসনের কাছে জমা দেয়ার নিয়ম থাকলেও তা মানেন নি ঠাকুরগাঁও সদর উপজেলার মোহাম্মদপুর ইউনিয়নের আওয়ামী লীগ প্রার্থী মো. সোহাগ।

আওয়ামী লীগ প্রার্থীর লোকজন প্রকাশ্যে তাদের লাইসেন্স করা শটগান ও পিস্তল নিয়ে ভোটারদের কাছে যাচ্ছেন এবং নৌকা বাদে অন্য কোথাও ভোট না দেয়ার হুমকি দিচ্ছেন বলে অভিযোগ উঠেছে।

বুধবার দুপুরে ওই ইউনিয়নে সরেজমিনে গিয়ে দেখা গেছে, প্রার্থীর পাশে সারাক্ষণ শটগান নিয়ে দাঁড়িয়ে থাকছেন সাদা পাঞ্জাবী পরিহিত এক লোক।

স্থানীয়রা জানিয়েছেন, আওয়ামী লীগের প্রার্থীর কাছে শটগান ছাড়াও তার লোকজনের কাছে পিস্তলসহ বিভিন্ন অস্ত্র রয়েছে। যা নিয়ে তারা প্রকাশ্যে ঘুরছেন এবং ভোটারদের বিভিন্নভাবে হুমকি দিচ্ছেন।

এদিকে আওয়ামী লীগের প্রার্থীর প্রকাশ্যে অস্ত্র নিয়ে ভোটের মাঠে নামার কারণে সাধারণ ভোটারসহ অন্যদলের প্রার্থীদের মধ্যে আতঙ্ক কাজ করছে।

এ ব্যাপারে মোহাম্মদপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের প্রার্থী মো. সোহাগ বলেন, আমার নির্বাচনী প্রচারণা কয়েকজন আত্মীয় স্বজন এসেছেন। তাদের একটি শটগান ও পিস্তল রয়েছে। তবে সেগুলো লাইসেন্স করা। নিজের নিরাপত্তার স্বার্থেই অস্ত্রগুলো তারা সঙ্গে রেখেছে। তবে অস্ত্র নিয়ে কাউকে ভয়ভীতি দেখানো হচ্ছে না।

এ ব্যাপারে ঠাকুরগাঁওয়ের পুলিশ সুপার ফারহাত আহম্মেদ জানান, এমন অভিযোগ আমাদের কাছে নেই। অভিযোগ পেলেই প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।

তিনি আরো বলেন, অস্ত্র জমা নেয়ার ব্যাপারে আমরা এখনো কোনো নিদের্শনা পাইনি।

জেলা প্রশাসক মূকেশ চন্দ্র বিশ্বাস জানান, নির্বাচনী আচরণ বিধিতে নির্বাচনী এলাকায় অস্ত্র নিয়ে ঘুরা ফেরা নিষেধ। কোনো প্রার্থী যদি তা লঙ্ঘন করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।জাগো নিউজ।






মন্তব্য চালু নেই