মেইন ম্যেনু

প্রতিকার চাওয়ায় ধর্ষিতার বাড়ীতে হামলা, মারপিট ও ভাংচুর!

প্রতিবন্ধিকে ধর্ষনের ঘটনায় মামলা দায়ের : গ্রেফতার-৩

কাজী আনিছুর রহমান, রাণীনগর (নওগাঁ) সংবাদদাতা: নওগাঁর রাণীনগরে এক বুদ্ধিপ্রতিবন্ধি মেয়েকে ধর্ষনের ঘটনা ঘটেছে । প্রতিকার চাওয়ায় ধর্ষকের লোকজন ওই ধর্ষিতার বাড়ীতে হামলা চালিয়ে মার-পিট ও ভাংচুরের ঘটনা ঘটিয়েছে । এঘটনায় থানায় মামলা দায়ের করলে থানা পুলিশ ৩ জনকে গ্রেফতার করেছে।

জানাগেছে, উপজেলার পারইল বিশা দক্ষিন পাড়া গ্রামে কছিম উদ্দীন ওরফে বাচ্চুর ছেলে ফরিদ উদ্দীন (৩২) একই গ্রামের জনৈক ব্যাক্তির বুদ্ধি প্রতিবন্ধি মেয়েকে (৩৫) একা পেয়ে গত শুক্রবার রাত অনুমান সাড়ে ১০টায় ধর্ষিতার নিজ শয়ন ঘড়ে জোরর্পুবক ধর্ষন করতে থাকে। এসময় মেয়ের চিৎকারে লোকজন ছুটে এসে ফরিদকে হাতে-নাতে আটক করে। আটক ফরিদ মারপিট করে পালিয়ে যায়। বিষয়টি গ্রামের মধ্যে ছড়িয়ে পড়লে উত্তেজনা বিরাজ করে। পরের দিন শনিবার মেয়ের অভিভাবকরা গ্রামের মাতবর প্রধানদের কাছে প্রতিকার চাইলে ধর্ষকের পরিবারের লোকজন ক্ষিপ্ত হয়ে ওই রাতেই ধর্ষিতার বাড়ীতে হামলা চালিয়ে দু’জন মহিলাকে মারপিট করে এবং রান্না ঘড় ও একটি গোয়াল ঘড় ভাংচুর করে। এঘটনায় মেয়ের ভাই বাদী হয়ে রবিবার রাতে ফরিদুলকে প্রধান করে ৪ জনের নাম উল্লেখসহ আরো ৩/৪জনকে অজ্ঞাতনামা আসামী করে মামলা দায়ের করেন। মামলার প্রেক্ষিতে থানা পুলিশ অভিযান চালিয়ে রাতেই ওই গ্রামের বেলাল হোসেনের ছেলে জহুরুল হোসেন (২৬) মৃত মফিজ উদ্দীনের ছেলে কছিমউদ্দীন (৬০) ও বেলাল হোসেন (৫০) কে গ্রেফতার করে। গ্রেফতার কৃতদের গতকাল সোমবার আদালতে সোর্পদ করা হয়েছে।

এব্যাপারে মামলার তদন্ত কর্মকর্তা এসআই শফি জানান, হামলাকারীরা বাড়ীর কিছু অংশ ভাংচুর করেছে । ৩ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে এবং ধর্ষিতাকে মেডিক্যাল চেকআপে পাঠানো হয়েছে। মূল আসামীকে গ্রেফতারে অভিযান অব্যাহত আছে।






মন্তব্য চালু নেই