মেইন ম্যেনু

প্রতিশোধের মিশনে চ্যাম্পিয়নদের হারাল ইতালি

ইউরো চ্যাম্পিয়নশিপের গত আসরে ফাইনালে এই স্পেনের কাছে ৪-০ গোলে শোচনীয়ভাবে হেরেছিল ইতালি। তার আগেরবার কোয়ার্টার-ফাইনালে এই স্প্যানিশদের কাছে টাইব্রেকারে একই প্রতিপক্ষের কাছে হেরে বিদায় নিয়েছিল দলটি। পরপর দুটি আসরে হারের সেই প্রতিশোধ এবার নিল ইতালিয়ানরা। শেষ দুবারের চ্যাম্পিয়ন স্পেনকে সোমবার রাতে ২-০ গোলে হারিয়ে কোয়ার্টার-ফাইনালে উঠেছে আন্তোনিও কোন্তের দল।

প্রথমার্ধে জর্জো কিয়েল্লিনি গোল করে এগিয়ে নেন ইতালিকে। পরে ম্যাচের যোগ করা সময়ে ব্যবধান দ্বিগুণ করেন গ্রাৎসিয়ানো পেল্লে। কোয়ার্টার ফাইনালে এখন তাদের প্রতিপক্ষ ইউরোপীয় ফুটবলের আরেক পরাশক্তি বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন জার্মানি।

ম্যাচের শুরু থেকেই মাঠের নিয়ন্ত্রণে ছিল ইতালি। স্পেনের গোলরক্ষক দাভিদ দে হেয়া দারুণ দুটি সেভ না করলে প্রথমার্ধেই একাধিক গোল পেত তারা। খেলার ৮ মিনিটে আলেসান্দ্রো ফ্লোরেন্সির ফ্রি-কিকে পেল্লের হেড ঝাঁপিয়ে পড়ে ফেরান দে হেয়া। গোল পেতে অবশ্য ইতালিকে অপেক্ষা করতে হয় ৩৩ মিনিট পর্যন্ত। ব্রাজিলিয়ান বংশাদ্ভূত এদেরের নিচু শট দে হেয়া ঠেকালে ছুটে এসে ফিরতি বল জালে পাঠিয়ে দেন কিয়েল্লিনি।

বিরতির আগে বাঁ দিক থেকে বল নিয়ে এসে এমানুয়েলে জাক্কেরিনির দূরপাল্লার শট লাফিয়ে এক হাতে দুর্দান্ত সেভ করেন স্প্যানিশ গোলরক্ষক দে হেয়া। ৫৫তম মিনিটে ব্যবধান বাড়ানোর সহজতম একটি সুযোগ নষ্ট করেন ইতালির এদের। বল নিয়ে ডি-বক্সে ঢুকে গোলরক্ষককে একা পেয়েও গোল করতে পারেননি এই ফরোয়ার্ড। সোজাসুজি আসা শট ঠেকিয়ে দেন দে হেয়া।

ম্যাচের শেষ ১৫ মিনিটে স্পেন বেশ কয়েকটি ভালো আক্রমণ করলেও গোল পায়নি। ৭৬তম মিনিটে আন্দ্রেস ইনিয়েস্তার ভলি দক্ষতার সঙ্গে ফেরান বুফ্ফন। পরের মিনিটে জেরার্দ পিকের দুরপাল্লার শট ডানে ঝাঁপিয়ে ঠেকান বর্ষীয়ান এই গোলরক্ষক।

নির্ধারিত সময়ের শেষ মিনিটে জেরার্ড পিকের ভলি দুর্দান্তভাবে ঠেকিয়ে ম্যাচটা অতিরিক্ত সময়ে নিতে দেননি বুফ্ফন। স্পেন গোল না পেলেও যোগ করা সময়ে পেল্লে ইতালির জয়ের ব্যবধান বাড়ান। বদলি হিসেবে নামা মাত্তেও দারমেইনের শটে বল প্রতিপক্ষের এক খেলোয়াড়ের পায়ে লেগে একটু উপরে উঠলে কাছ থেকে ভলিতে জালে জড়ান পেল্লে।






মন্তব্য চালু নেই