মেইন ম্যেনু

:প্রধানমন্ত্রীর ডাকে দেশে সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদের বিরুদ্ধে গণজোয়ার সৃষ্টি হয়েছে”

সরকার দুলাল মাহবুব, রাজশাহী থেকে: রাজশাহীর বাগমারায় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল এমপি বলেছেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ডাকে জঙ্গি ও সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে দেশে গণজোয়ার সৃষ্টি হয়েছে। মানুষ আজ জেগে উঠেছে। জঙ্গিবাদের বিরুদ্ধে যে জনযুদ্ধ শুরু হয়েছে বিজয়ের মধ্য দিয়েই তার কাঙ্খিত লক্ষ্য পূরণ হবে।

শনিবার বিকেলে রাজশাহীর বাগামারার ভবানীগঞ্জে স্থানীয় আওয়ামী লীগ আয়োজিত ‘জঙ্গি ও সন্ত্রাসবাদ নির্মূলে আমাদের করনীয় শীর্ষক আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, এক সময় রক্তাক্ত জনপদ খ্যাত এই বাগমারা অঞ্চলেই জঙ্গিবাদের উত্থান হয়েছিল। কিন্তু বর্তমান সরকার ক্ষমতা গ্রহণের পর বাগমারা এখন শান্তি ও উন্নয়নের জনপদে পরিণত হয়েছে। মানুষ এখন নিরপদে ও শান্তিতে ঘুমোতে পারে।

সাম্প্রতিককালে যে জঙ্গি তৎপড়তা শুরু হয়েছে তা বাংলাদেশর একার সমস্যা নয়। সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদ এখন বৈশ্বিক সমস্যা। তাই এর বিরুদ্ধে সবাইকে সোচ্চার থাকতে হবে। সবাইকে সঙ্গে নিয়ে ঐক্যের মাধ্যমে সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদের বিরুদ্ধে এভাবেই প্রতিরোধ গড়ে তুলতে হবে।

তিনি দৃঢ়কণ্ঠে বলেন, বাংলাদেশে কোনো আইএস নেই। জাতীয় ও আন্তর্জাতিক চক্রান্তের মাধ্যমে স্বাধীনতা বিরোধীরা, ৭৫’র ঘাতকরাই বাংলাদেশে অস্থিতিশীল পরিবেশ সৃষ্টির পাঁয়তারা করছে। কিন্তু তারা সফল হতে পারবে না। সংগ্রামী জনতার কাছে ৭১’র মত তারা আবারও পরাজিত হবে।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী উল্লেখ করে বলেন, সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে দেশের জনগণের মধ্যে ইতোমধ্যেই ঐক্য গড়ে উঠেছে। সমাজের প্রতিটি স্তর থেকেই জঙ্গি ও সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে বজ্রকণ্ঠে আওয়াজ উঠেছে। শান্তির ধর্ম ইসলাম কখনওই জঙ্গিবাদকে সমর্থন করে না। বাংলার সাধারণ মানুষই জঙ্গিবাদকে নির্মূল করবেই।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী নারায়ণগঞ্জের পাইকপাড়ার ঘটনা উল্লেখ করে বলেন, কাউন্টার টেরোরিজম অভিযান হিট স্ট্রং-২৭ এ গুলশান ও শোলাকিয়াসহ সাম্প্রতিক সকল জঙ্গি হামলার হোতা তামিম চৌধুরী নিহত হয়েছে। এই সফল অভিযানের মধ্যে দিয়ে ‘তামিম চৌধুরী’র চ্যাপ্টার এখানেই শেষ। তিনি বলেন, ‘জঙ্গিরা এখন সংখ্যায় অল্প। তারা জনবিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে। গোয়েন্দা সংস্থার লোকজন তাদের কাজ করছেন। বাকি অল্প সংখ্যক যে জঙ্গি আছে, তাদেরকেও আমরা ধরে ফেলবো’।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আরও বলেন, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান সুখি, সমৃদ্ধশালী স্বনির্ভর বাংলাদেশ গড়তে চেয়েছিলেন। তার সুযোগ্য কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সেই লক্ষ্যে নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছেন। আপনারা সঙ্গে থাকলে কোনো চক্রান্ত্র এই উন্নয়নের ধারাকে ব্যহত করতে পারবে না।
রাজশাহীর-৪ (বাগমারা) আসনের সংসদ সদস্য ইঞ্জিনিয়ার এনামুল হকের সভাপতিত্বে সভায় বিশেষ অতিথি ছিলেন, রাজশাহীর সংরক্ষিত আসনের সংসদ সদস্য ও জেলা আওয়ামীলীগের সহসভাপতি আখতার জাহান, সাবেক সংসদ সদস্য ও জেলা আওয়ামীলীগের সাবেক সভাপতি মেরাজ উদ্দিন মোল্লা, সহসভাপতি অনিল কুমার সরকার, উপজেলা চেয়ারম্যান জাকিরুল ইসলাম সান্টু, জেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক আসাদুজ্জামান আসাদ, রাজশাহী আদালতের পিপি অ্যাডভোকেট ইব্রাহিম হোসেন।

এছাড়া জেলা ও উপজেলা আওয়ামীলীগের শীর্ষ পর্যায়ের নেতারা সভায় বক্তব্য রাখেন। পরে সংসদ সদস্য ইঞ্জিনিয়ার এলামুল হক বাগমারায় আগমণ উপলক্ষে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর হাতে সম্মনা ক্রেস্ট তুলে দেন।

এর আগে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ভবানীগঞ্জ হেলিপ্যাডে অবতরণ করার পর বঙ্গবন্ধু স্মৃতি জাদুঘর কমপ্লেক্স পরিদর্শন করতে চানপাড়ায় যান। পরে তিরি বাগমারার শিকদারীতে নবনির্মিত ফায়ার সার্ফিস ও সিভিল ডিফেন্স স্টেশন এবং হাটগাঙ্গোপাড়া এবং যোগীপাড়া পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের নব-নির্মিত ভবনের উদ্বোধন করেন। সন্ধ্যায় রাজশাহী জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে প্রসাশনের কর্মকর্তাদের সঙ্গে মতবিনিময়সভায় মিলিত হন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী।






মন্তব্য চালু নেই