মেইন ম্যেনু

‘প্রধান চ্যালেঞ্জ অর্থনৈতিক ও সামাজিক অসাম্য’

‘দারিদ্র্য হ্রাসে সন্তোষজনক অগ্রগতি হলেও দেশে এখন প্রধান চ্যালেঞ্জ অর্থনৈতিক ও সামাজিক অসাম্য। এ কারণেই টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা (এসডিজি) অর্জনের ক্ষেত্রে অসাম্য দূরীকরণকে সবচেয়ে বেশি গুরুত্ব দেওয়া হয়েছে।’

রোববার রাজধানীর ব্র্যাক সেন্টারে এক ওরিয়েন্টেশন অনুষ্ঠানে বক্তারা এ অভিমত ব্যক্ত করেন।

৭ম পঞ্চবার্ষিকী পরিকল্পনা বাস্তবায়ন ও টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা অর্জন ফলপ্রসূ করার জন্য সমন্বয় বিষয়ক এ ওরিয়েন্টেশনের আয়োজন করে এনজিও বিষয়ক ব্যুরো। আয়োজনে সহযোগিতা করে ব্র্যাক।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে মন্ত্রিপরিষদ সচিব মোহাম্মদ শফিউল আলম বলেন, বেসরকারি সংস্থাগুলোর একজন আঞ্চলিক ম্যানেজার স্বাধীনভাবে দ্রুত সিদ্ধান্ত নিতে পারেন। কিন্তু সরকারের আন্তরিকতা থাকা সত্ত্বেও আমলাতান্ত্রিকতার কারণে অনেক সময় তা পারা যায় না। এজন্য বেসরকারি সংস্থার সঙ্গে আমাদের সমন্বিতভাবে কাজ করতে হবে। কেননা, আমাদের প্রত্যেকের টার্গেট দারিদ্র্য বিমোচন।

সভাপতির বক্তব্যে এনজিও বিষয়ক ব্যুরোর মহাপরিচালক মো. আসাদুল ইসলাম বলেন, বেসরকারি সংস্থাগুলোকে এখন শুধু নারী উন্নয়ন, স্বাস্থ্য, প্রাথমিক শিক্ষার মতো গতানুগতিক কর্মসূচি নিয়ে কাজ করলে হবে না। সমাজ পরিবর্তনের সাথে সাথে তাদেরকেও উদ্ভাবনী ও সৃজনশীল ধারণা নিয়ে অগ্রসর হতে হবে।

ওরিয়েন্টেশনে উপস্থিত ছিলেন ব্র্যাকের নির্বাহী পরিচালক ডা. মুহাম্মদ মুসা, ব্র্যাকের কর্মকর্তা কে এ এম মোর্শেদ, প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের গভর্নেন্স ইনোভেশন ইউনিটের মহাপরিচালক মো. আব্দুল হালিম, বাংলাদেশ ব্যাংকের ফাইনান্সিয়াল ইন্টেলিজেন্স ইউনিটের যুগ্ম পরিচালক মাসুদ রানা প্রমুখ।

ওরিয়েন্টশনের প্রথম পর্যায়ে ঢাকা বিভাগের ছয় জেলার অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক ও ৩৪ জন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা এবং ছয়জন সহকারী কমিশনারসহ মোট ৪৬ জন সরকারি কর্মকর্তা এবং বিভিন্ন বেসরকারি সংস্থার প্রতিনিধি অংশ নেন।






মন্তব্য চালু নেই