মেইন ম্যেনু

প্রাচীন সংস্কৃতি ও বিশ্বাসকে ভেঙে দিল এক চিনা লাস্যময়ীর ‘নগ্ন ফটোশুট’

৭২ কিমি দৈর্ঘ্যের সুবিশাল ইয়ামড্রক হ্রদটি তিব্বতের অন্যতম পবিত্র হ্রদ বৌদ্ধ ধর্মাবলম্বীদের কাছে। সেই হ্রদের পবিত্রতা নষ্ট হয়েছে বলে রে রে পড়ে গিয়েছে সোশ্যাল মিডিয়ায়।

‘বিদ্রোহী’ এক চিনা লাস্যময়ী ইয়ামড্রক লেকে সিক্ত হয়ে কয়েকটি নগ্ন ছবি তুলে সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করে দিয়েছেন। আর তাতেই তেলে-বেগুনে জ্বলেছেন ধর্মপ্রাণ তিব্বতিদের একটা বড় অংশ। তাঁদের দাবি, পবিত্র হ্রদে নগ্ন ছবি তুলে হ্রদটিকে অপবিত্র করে দিয়েছেন ওই মহিলা।

হ্রদ সংলগ্ন বৌদ্ধমন্দির কর্তৃপক্ষ ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে। প্রসঙ্গত, বৌদ্ধধর্মালম্বীরা ইয়ামড্রক হ্রদকে ‘লিভিং বুদ্ধ’ বলে থাকেন।

ইন্টারনেটে ওই চিনা লাস্যময়ী নিজেকে ‘ইউচুমদোলকার’ নামেই পরিচয় দিয়েছেন। একটি নয়, নিজের নগ্ন ছবির একটি সিরিজ পোস্ট করেছেন তিনি।

একটি ছবির ক্যাপশনে তিনি লিখেছেন, ‘একজন দক্ষ ফটোগ্রাফার ও একজন ভালো মডেল প্রাচীন সংস্কৃতি ও বিশ্বাসকে ভেঙে দিল।’






মন্তব্য চালু নেই