মেইন ম্যেনু

প্রাচীন সমাধিতে আজব দানবের ছবি, রহস্য দানা বাঁধছে চিনে

কবরের দরজা পেরতেই পাওয়া গেল আশ্চর্য সব দেওয়াল-চিত্র। না তেমন কোনও চেনা পরিচিত গাছ-ফুল-লতা-পাতা নয়, এই দেওয়াল-চিত্রের অধিকাংশই কেমন গা ছমছমে।

সম্প্রতি চিনের শানজি প্রভিনশিয়াল ইনস্টিটিউট অফ আর্কিওলজি-র প্রত্নতত্ত্ববিদরা আধুনিক জিনঝাউ শহরের মধ্যেই আবিষ্কার করেছেন এই আশ্চর্য সমাধিটি। চিনের প্রত্নবিভাগের খবর মোতাবেক, সমাধিটি ১৪০০ বছরের পুরনো। এই সমাধিগৃহটিকে পর্যবেক্ষণ করতে গিয়েই প্রত্নতাত্ত্বিকরা দেখতে পান, সেই গৃহের দেওয়ালে এমন কিছু ফ্রেস্কো রয়েছে, যার অর্থ তাঁদের কাছেও অজানা।

এক নীল দানব, ডানাওয়ালা ঘোড়া, এক আশ্চর্য বায়ুদেবতার ছবি সেই সমাধির দেওয়ালে রয়েছে। এই ধরনের ছবি এর আগে কোনও চৈনিক সমাধিতে দেখা যায়নি বলেই তাঁরা দাবি করেছেন ‘চাইনিজ আর্কিওলজি’ নামের গবেষণা পত্রিকায়। বিশেষ করে নীল দানবের ছবিটি তাঁদের কাছে যথেষ্ট রহস্যময় বলেই বিবেচিত হচ্ছে।

২০১৩ সালে যখন এই সমধিটির সন্ধান পাওয়া যায়, তখন প্রত্নবিদরা সাব্যস্ত করেছিলেন যে, এই সমাধিটি এক বা একাধিক বার লুণ্ঠিত হয়েছে। সমাধি গৃহে কোনও মৃতদেহের অস্তিত্ব পাওয়া যায়নি। কিন্তু কিছু কফিনের টুকরো পাওয়া গিয়েছিল। পরে সন্ধান চালাতে চালেতে তাঁরা এই দেওয়াল-চিত্রগুলিকে দেখতে পান। এই সব আজব ছবি ছাড়াও সেখানে শিকার, প্রাকৃতিক দৃশ্য ইত্যাদিও অঙ্কিত রয়েছে। এই সব ছবি থেকে সেকালের সমাজ জীবন ও সংস্কার সম্পর্কে ধারণা করা যাবে বলে তাঁদের বিশ্বাস।






মন্তব্য চালু নেই