মেইন ম্যেনু

রয়্যাল ক্রাউন প্রিন্স নিজ হাতে পবিত্র কাবা ঘর পরিষ্কার করলেন

গত ৩০ মে ২০১৫ তারিখ রাত আনুমানিক ১০ টার দিকে সৌদি বাদশাহর প্রতিনিধি রয়্যাল ক্রাউন প্রিন্স পবিত্র কাবা ঘর পরিষ্কার করেন। ছবিতে দেখা যাচ্ছে বিভিন্ন বাহিনীর সৈন্যরা এসময় কাবা ঘর ঘিরে আছে।

প্রতিবছর রোজার পূর্বে এভাবে কাবা ঘরের অভ্যন্তর পরিস্কার করা হয়। হারামাইন শরিফের তত্ত্বাবধায়ক সৌদি বাদশার পক্ষে রাজ পরিবারের কোন একজন সদস্য এ কাজটি করে থাকেন।

উল্লেখ্য যে এর আগে গত বছর হজের জন্য পবিত্র কাবাঘর ধোয়ামোছার কাজ করা হয়েছিল ব্যাপকভাবে । কাবাঘর ধোয়ার এ কাজটি একটি বড় উৎসব হিসেবে পালিত হয়। কাবা ধোয়ার উৎসবটি মূলত মহানবী (সা.)এর অনুসরণে করা হয়। ৬৩০ সালে যখন মুসলমানরা মক্কা বিজয় করেছিল তখন তিনি মহান আল্লাহর এ পবিত্র ঘরকে ধৌত করেছিলেন। গত বছর কাবা ধোয়ার প্রক্রিয়ার জন্য দুই ঘণ্টা পবিত্র ঘরের দরজা খোলা রাখা হয়। গত বছর হারামাইন শরিফের তত্ত্বাবধায়ক প্রয়াত বাদশাহ আবদুল্লাহর পক্ষে মক্কার আমির রাজপুত্র মিশাল বিন আবদুল্লাহ পবিত্র ঘর ধোয়া উৎসবের উদ্বোধন করেন। দুই মসজিদবিষয়ক দফতরের নির্বাহী প্রধান শায়খ আবদুর রহমান আসসুদাইস, উপপ্রধান শায়খ মোহাম্মদ আল-খোজাইমসহ মন্ত্রী, শীর্ষ আলেম, কূটনীতিক, সাধারণ নাগরিক এবং দর্শনার্থীরা এতে যোগদান করেন।

প্রথমে কাবাঘরের মধ্যে দুই রাকাত নফল নামাজ আদায়ের মাধ্যমে কাবা ধোয়ার উৎসব শুরু করা হয়। এর ভেতরের দেয়াল পরিষ্কার করতে সাদা কাপড়ে গোলাপ, ওউদ এবং কস্তুরির সুগন্ধি যুক্ত করা হয়। গোলাপের সুগন্ধিযুক্ত জমজমের পানি মেঝেতে ঢালা হয়, তারপর খালি হাতে খেজুর পাতা দ্বারা পরিষ্কার করা হয়। পরিষ্কার করার পর ফ্লোর এবং দেয়াল সাদা কাপড় এবং টিস্যু দ্বারা শুকানো হয়। সবশেষে দেয়ালে ওউদ এবং গোলাপের প্রচুর সুগন্ধি ব্যবহার করা হয়।

[ ছবি কৃতজ্ঞতাঃ নকশী লাইফ ]



« (পূর্বের সংবাদ)



মন্তব্য চালু নেই