মেইন ম্যেনু

প্রিয় মানুষটি যখন অনেক দূরে, তখন সম্পর্কের যত্নে সাত পরামর্শ

বহু দূরে থেকেও যারা একে অপরের একান্ত মানুষ, তাদের জন্যে সম্পর্কের বিশেষ যত্ন নেওয়াটা গুরুত্বপূর্ণ কাজ। সাধারণত প্রেমিকাকে রেখে প্রেমিক বিদেশ পড়তে গিয়েছেন অথবা স্বামী বিদেশে থাকেন, এমন মানুষদের মাঝে মনের টান ধরে রাখতে বাড়তি কিছু করতে হয়। আধুনিক যুগে এই সম্পর্ককে আগের মতোই রাখতে নিন ৭টি পরামর্শ।

১. একটা লক্ষ্য স্থির করুন : দুজনের মাঝে পথের বিশাল দূরত্ব থাকলে দুজনেরই ভবিষ্যত লক্ষ্যটা স্থির করে নিতে হবে। এভাবে আজীবন সম্পর্ক টেকে না। এখন হয়তো দূরে রয়েছেন, কিন্তু ভবিষ্যতে কি করবেন এবং কিভাবে আবার দুজন একসঙ্গে থাকতে পারবেন তা নিয়ে পরিকল্পনা করে রাখুন। তাহলে এই লক্ষ্যকে সামনে রেখে মানুষ এগিয়ে যেতে পারে।

২. মনের কথা তুলে ধরুন : দূরে থাকা অবস্থায় দুজনের নানা বিষয় নিয়ে মনে সন্দেহ দানা বাঁধতে পারে। তাই কিছু বিষয় পরিষ্কার করে নিন। একজন অপরের অনুপস্থিতিতে কি কি করতে পারবেন বা পারবেন না, তা নিয়ে কথা বলুন। আপনার মনে যদি বিশেষ কিছু করার ইচ্ছা থাকে তবে তা পরিষ্কারভাবে তুলে ধরুন। এতে করে বিশ্বস্ততা নষ্ট হবে না।

৩. দূরে থেকেও একসঙ্গে থাকুন : দুজনের দেহ দুটো বহু দূরে রয়েছে। কিন্তু তার অর্থ এই নয় যে, আপনারা কোনো কাজ একসঙ্গে করতে পারছেন না। বিশেষ কোনো টেলিভিশন অনুষ্ঠান দুই প্রান্ত থেকে দুজনই একসঙ্গে দেখুন। সোশাল মিডিয়ায় বহু বিষয় শেয়ার করুন। ইন্টারনেটে কথা বলুন। এভাবে বহু সময় একসঙ্গে কাটানো যায়।

৪. প্রচুর কথা বলুন : প্রিয় মানুষ দূরে থাকলে একটি বিষয় বেশি বেশি করার চেষ্টা করবেন। তা হলো, দুজনই প্রচুর কথা বলুন। কথা বলার জন্যে প্রচুর সময় হাতে রাখুন। খুঁটিনাটি যেগুলো বলার নয়, তাও বলতে থাকুন। যে বিষয়গুলো চোখে দেখার তা মুখে বলে দিন। এভাবে সম্পর্কে সব সময় গভীর হয়ে টিকে থাকবে।

৫. সততা ধরে রাখুন : অনেক সময় যাবে যখন আপনি একাকিত্ব বোধ করবেন, কষ্ট হবে, হিংসা জন্মাবে এবং অস্থিরতা বোধ করবেন। কিন্তু এসব ক্ষেত্রে সততা ধরে রাখুন। কিছু লুকানোর পরিবর্তে তাকে সামনে তুলে আনুন। প্রিয় মানুষটির সঙ্গে কথা বলে দেখুন। তিনি হয়তো প্রবোধ দিতে পারবেন।

৬. হাতে লিখা চিঠি আদান-প্রদার করুন : এই জিনিসের আবেদন কখনো নষ্ট হবে না। আপনারা প্রতিনিয়ত হয়তো টেক্সট চালাচালি করছেন, স্কাইপে-তে কথা বলছেন বা ভিডিও কল করছেন। এর পাশাপাশি হাতে লেখা চিঠির লেন-দেন করুন। এর অনুভূতি হারাবার নয়।

৭. নিজের মতো থাকুন : কাছেপিঠে শুধুমাত্র একজন মানুষ নেই, যদিও তিনি সবচেয়ে প্রিয়। আর সবাই তো আছেন। পরিবার ও বন্ধুমহলের সঙ্গে সময় কাটান। ঘুরতে যান, সিনেমা দেখুন, রান্না করুন, পড়াশোনা করুন ইত্যাদি। জীবনের অন্যান্য বিষয় থেকে আলাদা হয়ে যাবেন না।






মন্তব্য চালু নেই