মেইন ম্যেনু

প্রেমিকাকে অপহৃত করল প্রেমিক: অতঃপর…

কুমিল্লার চৌদ্দগ্রামে নাছরিন সুলতানা মারজান নামে অপহৃত এক তরুণীকে উদ্ধার করেছে পুলিশ। এসময় তার প্রেমিক কলেজ ছাত্র কাউছারকেও গ্রেফতার করা হয়। বুধবার রাতে উপজেলার ঘোলপাশা ইউনিয়নের হাড়িসর্দার এলাকায় মারজানের খালার বাড়িতে অভিযান চালিয়ে তাদেরকে আটক করা হয়েছে।

জানা গেছে, উপজেলার কনকাপৈত ইউনিয়নের হিংগুলা হাজী বাড়ির রাজমিস্ত্রী আবদুল মতিনের মেয়ে নাছরিন সুলতানা মারজানের (২২) দীর্ঘদিন ধরে একই ইউনিয়নের পন্নারা গ্রামের আবুল হাশেমের ছেলে ও কনকাপৈত আলহাজ্ব নুর মিয়া ডিগ্রী কলেজের দ্বাদশ শ্রেণীর ছাত্র কাউছারের সাথে প্রেমের সম্পর্ক চলে আসছিল।

এক পর্যায়ে গত ৩০ এপ্রিল তারা উভয়ে পরিবারকে না বলে পালিয়ে যায়। কিন্তু তরুণী মারজানের বাবা আবদুল মতিন বাদি হয়ে চৌদ্দগ্রাম থানায় কাউছার, তার পিতা আবুল হাশেম, মাতা রিনা বেগম ও কাউছারের বন্ধু মোজাম্মেলকে আসামী করে একটি মামলা দায়ের করেন। পুলিশ মামলার সূত্র ধরে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে বুধবার রাতে মারজানের খালার বাড়ি উপজেলার হাড়িসর্দার থেকে তাকে উদ্ধার ও প্রেমিক কাউছারকে আটক করে।

বৃহস্পতিবার দুপুরে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা চৌদ্দগ্রাম থানার এসআই সাইফুল ইসলাম জানান, ‘অপহৃত মারজানকে উদ্ধার ও অপহরণকারী কাউছারকে আটক করা হয়েছে’।

তবে আটককৃত কাউছার জানায়, ‘মারজানের সম্মতিতেই ৩০ এপ্রিল দু’জনে পালিয়ে যাই। পরদিন ১ মে কুমিল্লার আদালতে তিন লাখ টাকা দেনমোহরে তাকে বিয়ে করি’।






মন্তব্য চালু নেই