মেইন ম্যেনু

প্রেমিকার মনের ২০ টপ সিক্রেট কী কী?

একেবারেই ভাববেন না, প্রেয়সীর মনের সব কথা জেনে ফেলেছেন। একেবারেই ভাববেন না, আপনিই সেই একমাত্র সৌভাগ্যবান ব্যক্তি, যার কাছে সবকিছু স্বীকার করেন আপনার প্রেয়সী।

তবে, প্রেমের বেলায় কোনও ফাঁক থাকে না তার। সে ব্যাপারের অবশ্য দারুণ কমিটেড। কিন্তু মনের ভিতর এমন অনেক সিক্রেট লুকিয়ে রাখেন, যার হদিশ আপনার জানা নেই।
নারী তার পুরুষের কাছে কোন কোন বিষয় লুকিয়ে রাখে, জেনে নিন। এতে অনেক বিষয় স্পষ্ট ধারণা তৈরি হবে।

১. প্রেয়সীর প্রাণের বান্ধবীটি তার সব (বা অধিকাংশ) কথা জানেন। এমন সব কথা, যা আর কেউ জানে না। এ ব্যাপারে প্রেয়সীর ওই বান্ধবী আপনাকে ১০ গোল দিয়ে রেখেছেন, এ কথা আপনি জেনে রাখুন।

২. স্রেফ আপনার হাতের দিকে চেয়ে যৌনতা জাগে তার মনে। এমন কথা কিন্তু তিনি আপনাকে কোনওদিনও বলেননি। কিন্তু মাঝেমধ্যে হয়তো সিগনাল দিয়েছেন। মনে করে দেখুন, হয়তো বলেছেন, “তোমার হাতটা…”

৩. কয়েক দিনের জন্য দেখাসাক্ষাৎ না হলে, প্রেয়সী আপনার রাতে পরার পোশাকটিকে জড়িয়ে ঘুমতে যান। এতে মিস করার যন্ত্রণাটা অনেকটা কমে যায় তার। পোশাকে আপনার শরীরের গন্ধ খোঁজেন তিনি। মনে মনে ভাবেন, আপনি আশপাশেই কোথাও আছেন।

৪. তিনি কোনওদিনই স্বীকার করবেন না, ক’জন পুরুষের সঙ্গে তার যৌনমিলন হয়েছে। এই বিষয়টি নিয়ে আলোচনা করতেই তার যত দ্বিধা।

৫. আপনাদের মধ্যে যৌনমিলনের অনেক আগে থেকেই সে বিষয়ে ফ্যান্টাসাইজ় করেছেন আপনার প্রেমিকা। কিন্তু, হাবেভাবে একবারের জন্যেও প্রকাশ করেননি মনের গভীরতম ইচ্ছেগুলি।

৬. আপনার এক্স প্রেমিকাদের নিয়ে সবরকম হোমওয়ার্ক সেরে রেখেছেন তিনি। সোশাল নেটওয়ার্কিং সাইটে তাদের প্রোফাইল নিয়ে ঘাঁটাঘাঁটিও করেছেন। এমন সব তথ্য বের করেছেন, যা আপনারও জানা নেই।

৭. আপনার প্রেমে পড়ার সময় খিদে চলে গিয়েছিস প্রেয়সীর। খালি পেট গুড়গুড় করত তার। সে কথা আপনি জানেন কি?

৮. প্রেমিকার সর্বাঙ্গে কিন্তু একেবারেই মোলায়েম মখমল নয়। তাকে বারে বারেই ওয়াক্সিং করাতে হয়।

৯. মুখে প্রকাশ না করলেও মনে মনে আপনাকে পরীক্ষা করেন আপনার প্রেমিকা। প্রাক্তন প্রেমিকদের সঙ্গে চলে দাঁড়িপাল্লার খেলা। ক্রমাগত তুলনা চলে মনে মনে।

১০. কোন কোন পর্ন সাইটে আপনি ঘোরাঘুরি করেন, সে খবরও আছে আপনার প্রেমিকার কাছে।

১১. সময়ের ব্যাপারে প্রেয়সীকে একেবারেই বিশ্বাস করবেন না। তিনি যদি বলেন ১৫ মিনিটে কোথাও পৌঁছে যাবেন, জানবেন এখনও তার বাড়ি থেকে বের হতে ১৫ মিনিট বাকি আছে।

১২. ঝগড়ার সময় আপনার সামনে যত না কান্নাকাটি করেছেন আপনার প্রেমিকা, আপনার আড়ালে তার চেয়ে অনেক বেশি কান্নাকাটি করেছেন। কিন্তু সেসব স্বীকার করেন না। পাছে ইগো হার্ট হয়।

১৩. সম্পর্ক শুরু হওয়ার আগে বহুবার আপনার গলা রেকর্ড করে শুনেছেন। শুধু তাই নয়, বন্ধুদেরও শুনিয়েছেন আশ মিটিয়ে।

১৪. যতই প্রেম ঝরে পড়ুক, মনে মনে আপনাকে পরীক্ষা করেই চলেছেন আপনার প্রেমিকা। প্রত্যেক বিষয় হয়তো নম্বরও দেন।

১৫. কোথাও যাওয়ার আগে প্রেমিকা কিন্তু আপনার পশ্চাৎদেশের দিকে দৃষ্টিপাত করেন। এটা করার কারণ বলা মুশকিল। কিন্তু তার নজর আপনা-আপনিই আপনার পশ্চাৎদেশের দিকে চলে যায়।

১৬. মুখে ঝ্যাংঝ্যাং করলেও, প্রেয়সী চান আপনি তার ব্যাপারে পজেটিভ হোন।

১৭. যৌনমিলনের সময় তিনি চাইবেন, আপনি ডমিনেট করুন।

১৮. আপনার বেস্টফ্রেন্ডকে বিরক্তিকর মনে হলেও, কখনও না কখনও তাকে নিয়েও যৌনকল্পনা করেছেন আপনার প্রেয়সী।

১৯. প্রেমিকা যে আপনার সঙ্গে ব্রেকআপ করতে চাইছেন, সেই খবর আপনার আগেই জেনে যান তার বান্ধবী।

২০. ব্রেকআপটা যদি শেষমেশ হয়েই যায়, ভাববেন না প্রেয়সী আপনার দেওয়া সব গিফ্ট, কার্ড ফেলে দিয়েছেন। সবকিছু একটি জুতোর বাক্সে ভরে আলমারির তাকে তুলে রাখবেন তিনি।






মন্তব্য চালু নেই