মেইন ম্যেনু

প্রেমের ক্ষেত্রে যা অবশ্যই ভেবে দেখবেন

আপনার প্রেমের রাজধানী কি শরীরেই শুরু আবার ঘুরে ফিরে শরীরেই শেষ। বন্ধুত্ব নয়, সঙ্গীর একমাত্র দাবি কি যৌনতা। সম্পর্কের মাঝ নদীতে গিয়ে এমন হয়তো মনে হচ্ছে আপনার। কিন্তু মন তাতে সায় দিচ্ছে না। সম্পর্কের শুরুতেই আপনি সঙ্গীর মধ্যে বিশেষ কিছু লক্ষণ দেখে বুঝতে পারবেন আপনার প্রেমের দৌড় ঠিক কতটা।

‘এসএমএস ’ কলিং: বন্ধুদের নিয়ে পার্টি করছেন। মাস্তি কি পাঠশালা জমজমাট। কিন্তু বারবার ম্যাসেজ করে সঙ্গী আপনাকে আলাদা ঘরে যেতে বলছেন। প্রথমদিকে এটা ভাল লাগলেও জানবেন ভবিষ্যতের জন্য এটা মোটেও ভাল নয়।

এক্সট্রা ডেট: বারবার দেখা করার চাহিদা রয়েছে আপনার সঙ্গীর। আপনারও বেশ ভালই লাগে। সম্পর্কের শুরুর এহেন অভ্যাস কিন্তু অন্য বিপদের ইঙ্গিত দিতে পারে।

হোমফ্রন্টে ডেটিং: রেস্তোরাঁ বা কফিশপ নয়, যদি আপনার সঙ্গীর ডেটিং পয়েন্ট হিসাবে সবসময়ই নিজের বাড়ি পছন্দ হয় সেক্ষেত্রে বিষয়টা ভেবে দেখবেন প্লিজ।

বন্ধু কে: আপনাদের সম্পর্কের বয়স মাস তিনেক গড়িয়েছে। তবুও তার সোশ্যাল লাইফে আপনার নো এন্ট্রি। বন্ধু মহলে আপনাকে কেন সে নিয়ে যাচ্ছে না, ভেবে দেখবেন।

বিয়ে বা লিভ টুগেদারে হ্যাংওভার: সম্পর্কের ভবিষ্যৎ নিয়ে কোনও আলোচনাতে আপনার সঙ্গী যদি আগ্রহী না হন তাহলে তার কারণ জানার চেষ্টা করুন। বিয়ে বা লিভ টুগেদার কোনোটাতেই না রাজি না হওয়া মানে আপনার সঙ্গীর কাছে সম্পর্কের মানসিক সত্ত্বা নয়, শারীরিক সত্ত্বাই বেশি গুরুত্বপূর্ণ।






মন্তব্য চালু নেই