মেইন ম্যেনু

ফরিদপুর বাইপাসের দুইপাশে গড়ে উঠবে নতুন শহর

স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রী ইঞ্জিনিয়ার খন্দকার মোশাররফ হোসেন বলেছেন, ফরিদপুর শহর বাইপাস সড়কের দুইপাশে গড়ে তোলা হবে নতুন শহর। সেখানে ১০০ কোটি টাকা ব্যয়ে তিন একর জায়গায় স্থাপন করা হবে বস্ত্র ইনস্টিটিউট।

শুক্রবার সন্ধ্যায় স্থানীয় অম্বিকা ময়দানে ফরিদপুর কোতোয়ালী ও শহর স্বেচ্ছাসেবক লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে মন্ত্রী একথা বলেন। জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের আহ্বায়ক শওকত আলী জাহিদ সভায় সভাপতিত্ব করেন।
মন্ত্রী বলেন, ফরিদপুরবাসীর দীর্ঘদিনের প্রত্যাশা ছিল ফরিদপুর শহরে হবে বিভাগীয় প্রধান কার্যালয়। সেটিতো হবেই, ফরিদপুর পৌরসভা উন্নীত হবে সিটি করপোরেশনে, যে কারণে চলমান পৌর নির্বাচনের তফসিলে ২৩৬টি পৌরসভার মধ্যে ফরিদপুর নেই। আওয়ামী লীগের ফরিদপুর নগর কমিটি ও জেলা কমিটির মর্যাদা হবে সমমানের। এটা হবে আমাদের জন্য আরও গর্বের।

তিনি বলেন, ফরিদপুরে বর্তমানে আওয়ামী পরিবার অতীতের যেকোনো সময়ের চেয়ে সংগঠিত ও ঐক্যবদ্ধ, আজকের এই সম্মেলনে বিপুল নেতাকর্মীর উপস্থিতিই তা প্রমাণ করে।

ফরিদপুর শহরের উপর দিয়ে বয়ে যাওয়া কুমার নদ খনন ও তীর বাঁধাই প্রসঙ্গে মন্ত্রী বলেন, ১৮৭ কোটি টাকা ব্যয়ে আগামী দুই মাসের মধ্যে শুরু হবে কুমার নদ খননের কাজ।

খন্দকার মোশাররফ হোসেন বলেন, নদীটির দুই পার পাকা করে বেঁধে দেওয়া হবে, যাতে শহরের মানুষ বিনোদন কেন্দ্র হিসেবে নদীর দুই পাড়কে ব্যবহার করতে পারে।
উপস্থিত নেতাকর্মীদের উদ্দেশে মন্ত্রী বলেন, আমাকে ভোট দিয়ে নির্বাচিত করে ফরিদপুরবাসী বঞ্চিত হয়নি, সেটা বর্তমান সরকারের প্রধান জননেত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে ফরিদপুরে বিপুল পরিমাণ উন্নয়ন কর্মকাণ্ডের মধ্য দিয়ে তা প্রমাণ করেছি।

এলজিআরডি মন্ত্রী বলেন, গত সাত বছরে ফরিদপুরে যে উন্নয়ন করেছি তা সারাদেশের মধ্যে নজীরবিহীন।

সম্মেলনের প্রধান বক্তা ছিলেন কেন্দ্রীয় স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি অ্যাড. মোল্লা মো. আবু কাওছার। সম্মেলন উদ্বোধন করেন কেন্দ্রীয় স্বেচ্ছাসেবক লীগের ঢাকা বিভাগের সাংগঠনিক সম্পাদক আবদুল আলীম। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন কেন্দ্রীয় স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদক পংকজ দেবনাথ এমপি ও ফরিদপুর সদর উপজেলা চেয়ারম্যান খন্দকার মোহতেশাম হোসেন বাবর।






মন্তব্য চালু নেই