মেইন ম্যেনু

ফিলিপাইন অভিমুখে ঘূর্ণিঝড় কুপ্পো

ফিলিপাইনে ২০১৩ সালে ঘূর্ণিঝড় হাইয়ানের আঘাতে ব্যাপক প্রাণহানির পর এবার দেশটির উপকূলের দিকে ধেয়ে আসছে ঘূর্ণিঝড় কুপ্পো। আবহাওয়া অফিস জানিয়েছে, ঘূর্ণিঝড় কুপ্পো ভারি বর্ষণের পাশাপাশি ঝড়ো বাতাস বয়ে আনতে পারে। সেই সঙ্গে বিপদসীমার ওপর দিকে পানি বইতে পারে যা পুরো উপকূল জুড়ে দুই ফুট উচ্চতার বন্যা ঘটাতে পারে।

দেশটির প্রেসিডেন্ট বেনিংগো এক্যুইনো সর্বসাধারণের নিরাপত্তার স্বার্থে জাতীয় পর্যায়ে বিশেষ সতর্কতা জারি করেছেন ইতোমধ্যে। ফিলিপাইনের রাষ্ট্রীয় গণমাধ্যমের বিশেষ প্রতিবেদনে এ কথা জানানো হয়।

আবহাওয়া অফিসের দেয়া সর্বশেষ বার্তায় জানানো হয়, আগামী রোববার সকাল নাগাদ ঘূর্ণিঝড় কুপ্পো ফিলিপাইনের সমুদ্র উপকূলে আঘাত হানতে পারে বলে তারা ধারণা করছেন। সেই সঙ্গে প্রায় ১২ ঘন্টাব্যাপী বৃষ্টি হওয়ারও সম্ভাবনা রয়েছে। দেশের উত্তর-পূর্বাঞ্চলসহ বেশ কয়েকটি বিপজ্জনক অঞ্চল থেকে ইতোমধ্যে স্থানীয় সেচ্ছাসেবক এবং সরকারি উদ্যোগে লোকজনকে অন্যত্র সরিয়ে নেওয়া হচ্ছে।

গত ২০১৩ সালে দেশটিতে আঘাত হানা ঘূর্ণিঝড় হাইয়ানের আঘাতে প্রায় ৬,৩০০ জনের প্রাণহানি ঘটেছিল। সেই ক্ষত না শুকাতেই আবারও আঘাত হানতে যাচ্ছে আরেকটি শক্তিশালী ঘূর্ণিঝড়।

আবহাওয়া প্রতিবেদনে আরও জানা যায়, শুধুমাত্র কুপ্পোই নয় এর সঙ্গে অল্পদুরত্বে বইছে আরেকটি ঘূর্ণিঝড় চাম্পি। পশ্চিম প্রশান্ত মহাসাগরে পাশাপাশি ধেয়ে আসা দুটি ঘূর্ণিঝড়ের একটিই আঘাত হানতে পারে বলে ধারণা করছেন আবহাওয়াবিদগণ। কারণ দুটি ঘূর্ণিঝরই তাদের পথ পরিবর্তন করবে। তাছাড়া উপকূল পর্যন্ত আসতে আসতে চাম্পি তার বেগ হারাবে।

ইতোমধ্যে উত্তরাঞ্চলে বিপুল সেনাবাহিনীর সদস্যদের প্রস্তুত রাখা হয়েছে। সর্বশেষ আবহাওয়ার পূর্বাভাসে জানা যায়, ফিলিপাইনে আঘাত হানার পর ঘুর্ণিঝড় কুপ্পো তাইওয়ান অভিমুখে ধাবিত হবে।






মন্তব্য চালু নেই