মেইন ম্যেনু

ফিল্ডিং প্র্যাকটিসের পরেই মুশফিকের বিষয়ে সিদ্ধান্ত

আজও ইনডোরে একাই ব্যাটিং প্র্যাকটিস করলেন মুশফিকুর রহিম। আঙুলের চোট এখনো পুরোপুরি সারেনি। ফলে আসছে ভারতের বিপক্ষে একমাত্র টেস্টে উইকেটের পেছনে দাঁড়ানো এখনো অনিশ্চিত বাংলাদেশের এই টেস্ট অধিনায়কের। অবশ্য ব্যাটসম্যান হিসেবে খেলতে কোনো সমস্যা নেই মুশফিকের। আগামীকাল থেকে ফিল্ডিং প্র্যাকটিস করবেন তিনি। দুদিন ফিল্ডিং প্র্যাকটিসের পরেই ভারতের বিপক্ষে টেস্টে তার উইকেটকিপিং করা না-করার বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে বলে জানালেন বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) প্রধান চিকিৎসক দেবাশীষ চৌধুরী।

গত এপ্রিলে পাকিস্তানের বিপক্ষে খুলনা টেস্টে ডান হাতের আঙুলে ব্যথা পেয়েছিলেন মুশফিক। সেই থেকে আঙুলের ইনজুরিটা তাকে বেশ ভোগাচ্ছে। কদিন আগে সাংবাদিকদের বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন বলেছিলেন, ‘ভারতের বিপক্ষে প্রথম টেস্টে উইকেটরক্ষক হিসেবে মুশফিককে না-ও দেখা যেতে পারে। তার আঙুলের ব্যথা এখনো পুরোপুরি সেরে না ওঠায় এমন সিদ্ধান্ত আসার সম্ভাবনা রয়েছে।’

ভারতের বিপক্ষে ১০ জুন থেকে শুরু হতে যাওয়া টেস্টের জন্য ব্যাটিং, বোলিং ও ফিল্ডিংয়ে ঘাম ঝরাচ্ছেন টাইগাররা। তবে মুশফিক শুধু ব্যাটিং প্র্যাকটিস করছেন। আজ মিরপুর ইনডোর স্টেডিয়ামেও একা ব্যাটিং প্র্যাকটিস করেছেন বাংলাদেশের এই টেস্ট অধিনায়ক। তবে কাল থেকে দুই দিন ফিল্ডিং প্র্যাকটিস করবেন তিনি। তার পরেই ভারতের বিপক্ষে টেস্টে তিনি উইকেট কিপিং করতে পারবেন কি না, তা জানা যাবে। শেষ পর্যন্ত তিনি উইকেটকিপিংয়ের জন্য উপযুক্ত না হলে শুধু ব্যাটসম্যান হিসেবেই খেলবেন। আর উইকেটকিপিংয়ের জন্য তার বিকল্প কাউকে নেওয়া হবে। সে ক্ষেত্রে ভারত টেস্টে একাদশে সুযোগ পেতে পারেন উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান লিটন কুমার।

শনিবার মিরপুরে বিসিবির প্রধান চিকিৎসক দেবাশীষ চৌধুরী সাংবাদিকদের বললেন, ‘মুশফিক আগামীকাল থেকে ফিল্ডিং প্র্যাকটিস শুরু করবে। ফিল্ডিং প্র্যাকটিসের পরেই ওর আঙুলের অবস্থা জানা যাবে। টেস্টে ও কিপিং করবে কি না, সে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে দুদিন পর। যদি মুশফিক কিপিং না করতে পারে তাহলে ওর পরিবর্তে যে আছে সে কিপিং করবে।’






মন্তব্য চালু নেই