মেইন ম্যেনু

ফুড কোমা হওয়ার কারণ ও এড়িয়ে যাওয়ার ৪ টি উপায়

কেউ যখন খুব বেশি পরিমাণে খেয়ে ফেলে তখন খাওয়ার পরেই তার ঘুম পায় এবং ক্লান্ত অনুভব করে, এই অবস্থাকেই ফুড কোমা বলে। পোস্টপ্রান্ডিয়াল সমনোলেন্স কে ২০১৪ সালে ফুড কোমা নাম দেয়া হয় মানুষের বোঝার জন্য। ফুড কোমা কেন হয় এবং কীভাবে একে এড়িয়ে যাওয়া যায় সেই বিষয়ে জেনে নেব এই ফিচারে।

ফুড কোমা হওয়ার কারণ :

আমরা যখন কোন খাবার খাই তখন পাকস্থলিতে গ্যাস্ট্রিন নামক হরমোন উৎপন্ন হয়। এই হরমোন পরিপাক রসের উন্নয়নে কাজ করে। আমরা যখন আমাদের পছন্দের খাবার যেমন- পুড়ি, চকলেট, আইসক্রিম, ফুচকা ইত্যাদি খাই তখন আমাদের শরীর সুখি হরমোন নিঃসৃত করে। বিভিন্ন ধরণের গবেষণার মাধ্যমে খাদ্য ও ফুড কোমা (নিদ্রালুতা) এর সম্পর্ককে তাৎপর্যপূর্ণ বলা হয়েছে।

ফ্যাট ও কার্বোহাইড্রেট সমৃদ্ধ খাবার নিদ্রার জন্য দায়ী। কিন্তু প্রোটিন বা সুষম পুষ্টি উপাদান সমৃদ্ধ খাবার খেলে এমন হয়না। এর কারণ কার্বোহাইড্রেট সমৃদ্ধ খাবার খুব দ্রুত ভেঙ্গে চিনিতে পরিণত হয়ে রক্তে মিশে যায় এবং ইনসুলিন এর মাত্রা বৃদ্ধি করে শোষণকে উদ্দীপিত করে। ইনসুলিন ট্রিপ্টোফেন নামক অ্যামাইনো এসিডকে মস্তিষ্কে প্রবেশে সাহায্য করে এবং সেখানে এই অ্যামাইনো এসিড অন্য একটি রাসায়নিক উপাদানে রূপান্তরিত হয়। এর ফলেই নিদ্রাচ্ছনতা বা স্থিরতা তৈরি হয় শরীরে। প্রোটিন জাতীয় খাবারের এমাইনো এসিড মস্তিষ্কে প্রবেশ করার পর উদ্দীপক প্রভাব রাখে।

খাওয়ার পরে ফুড কোমা এড়িয়ে যাওয়ার ৪ টি উপায় :

১। পরিমিতরূপে সক্রিয় থাকুন

দিনের প্রধান খাবার খাওয়ার পরে হালকা কোন কাজ করার মাধ্যমে সক্রিয় থাকুন। এর ফলে ব্লাড সুগার নিয়ন্ত্রণে থাকবে। খাওয়ার পর পরই শুয়ে পড়বেন না বা অলস বসে থাকবেন না।

২। পরিমিত খান

অতিরিক্ত খাওয়া এড়িয়ে চলুন। অল্প অল্প করে কয়েকবারে খান। একবারে অনেক বেশি পরিমাণে খেলে ঘুম আসে এবং ওজন ও বৃদ্ধি পায়।

৩। পুষ্টি উপাদানের সমন্বয় করুন

পুষ্টি উপাদানের ভারসাম্য রক্ষা করে চললে নিদ্রালুতা এড়িয়ে যাওয়া যাবে এবং ওজন ও নিয়ন্ত্রণে থাকবে। প্রোটিন ও কার্ববোহাইড্রে ১ : ২ অনুপাতে খান। প্রাণীজ স্যাচুরেটেড ফ্যাটের পরিবর্তে উদ্ভিজ ও সামুদ্রিক ফ্যাট গ্রহণ করুন।

৪। ফল ও সবজি খান

সকল ধরণের মাইক্রো নিউট্রিয়েন্ট ও খনিজ উপাদান যেন আপনার দৈনিক খাদ্যের মধ্যে থাকে তা নিশ্চিত করুন। এজন্য সবজি, সালাদ ও ফল খান।

আপনি যদি আপনার নিজের যত্ন নেন এবং সঠিক খাদ্য খান তাহলে আপনার বিপাক প্রক্রিয়া ঠিকভাবে কাজ করবে এবং আপনার ওজন বৃদ্ধি পাবে না। যা ফুড কোমার সবচেয়ে বড় সাইড ইফেক্ট।






মন্তব্য চালু নেই