মেইন ম্যেনু

ফের কারাগারে মির্জা ফখরুল

ছয় মাস কারাভোগ করে গত ১৪ জুলাই জামিনে মুক্তি পেয়েছিলেন তিনি। সাড়ে তিন মাস পর আবার কারাগারে বিএনপির ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

নাশকতার তিন মামলায় আজ মঙ্গলবার বিকালে নিম্ন আদালতে আত্মসমর্পণ করলে তাকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন আদালত। বিকাল সোয়া চারটার দিকে ঢাকা মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট মারুফ হোসেন এই আদেশ দেন।

এর আগে বেলা সাড়ে তিনটার দিকে মির্জা ফখরুল ঢাকা মেট্রোপিলিটন মেজিস্ট্রেট আদালতে আত্মসমর্পণ করে জামিনের আবেদন জানান। শুনানি শেষে আদালত জামিন আবেদন নামঞ্জুর করে তাকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন।

গাড়ি পোড়ানো ও নাশকতার তিন মামলায় গত ২৮ অক্টোবর বিচারিক আদালতে আত্মসমর্পণ করতে সুপ্রিম কোর্টে আট সপ্তাহ সময়ের প্রার্থনা করেছিলেন বিএনপির এই নেতা। সেই মেয়াদ গতকাল শেষ হয়।

গতকাল সোমবার মির্জা ফখরুল আত্মসমর্পণের মেয়াদ বাড়ানোর আবেদন করেন সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগে। প্রধান বিচারপতি এস কে সিনহার নেতৃত্বাধীন চার বিচারপতির আপিল বেঞ্চ আবেদন নামঞ্জুর করেন এবং তাকে নিম্ন আদালতে আত্মসমর্পণের নির্দেশ দেন।

গত ১৪ জুলাই মির্জা ফখরুল নাশকতার অভিযোগে করা সাত মামলায় জামিন নিয়ে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রিজন সেল থেকে মুক্তি পান। সেবার তিনি প্রায় ছয় মাস কারাগারে ছিলেন।

চলতি বছরের ৬ জানুয়ারি মির্জা ফখরুলকে গ্রেপ্তার করে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী। পরে নাশকতার অভিযোগে পল্টন ও মতিঝিল থানার সাতটি মামলায় তাকে গ্রেপ্তার দেখানো হয়। এর মধ্যে পল্টন থানার মামলা ছয়টি ও মতিঝিল থানার একটি। সবগুলোতে তিনি হাইকোর্ট থেকে জামিন পান।

পরে পল্টন থানার দুটি ও মতিঝিল থানার একটি মামলায় হাইকোর্টের দেওয়া জামিন বহাল রাখেন আপিল বিভাগ।

তবে পল্টন থানার তিনটি মামলায় গত ১৩ জুলাই হাইকোর্টের জামিন আদেশ ছয় সপ্তাহের জন্য বহাল রাখেন আপিল বিভাগ।

এরপর হাসপাতালের প্রিসন সেল থেকে মুক্তি পেয়ে মির্জা ফখরুল চিকিৎসার জন্য সিঙ্গাপুর ও যুক্তরাষ্ট্রে যান। চিকিৎসার প্রয়োজনে পরে আরো আট সপ্তাহের জন্য জামিনের মেয়াদ বাড়ান আদালত। সেই মেয়াদ শেষ হয় গতকাল সোমবার।






মন্তব্য চালু নেই